হুইল চেয়ারে বসে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন রামু

ফিচার ডেস্ক
ফিচার ডেস্ক ফিচার ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ২১ মে ২০১৯

আমাদের বিলাসিতা কারো কারো জন্য লড়াই। একজনের বিলাসিতা রক্ষা করতে আরেকজন ছুটছেন তার দরজায়। যদিও তিনি স্বাভাবিক জীবনের মানুষ নন। একজন প্রতিবন্ধী যুবক। প্রতিবন্ধকতাও দমাতে পারেনি তাকে। ভারতের রাজস্থানের এই যুবকের নাম রামু।

বিলাসিতা বলতে ঘরে বসে ফোন থেকে আমরা খাবার অর্ডার করে থাকি। সময়মতো সে খাবার বাড়ির দরজায় পৌঁছে দিয়ে যাচ্ছেন কোন না কোন ‘ডেলিভারি বয়’। এমন সেবা দেওয়ার ফুড অ্যাপ বিশ্বজুড়ে এখন অসংখ্য। অনেক সময় যেমন ডেলিভারি বয়দের খারাপ আচরণের খবর পাওয়া যায়; তেমনই আবার শোনা যায় ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করেও কেউ কেউ এ কাজ করছেন।

সে কথা না হয় বাদই দিলাম, কারো জন্য আবার এটি শুধুই বেঁচে থাকার লড়াই। নিজেরই প্রতিবন্ধকতার বিরুদ্ধে যুদ্ধ। কেননা সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এমন একটি ভিডিও। ভিডিওটিতে ভারতের রাজস্থানের প্রতিবন্ধী যুবক রামুর খবর ছড়িয়ে পড়েছে।

ভারতের জনপ্রিয় একটি ফুড ডেলিভারি অ্যাপের টি-শার্ট পরে ওই যুবক নিজেই হুইল চেয়ার ঠেলে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন বাড়ি-বাড়ি। এতে বিন্দুমাত্রও হতাশ নন তিনি। বরং নিজের পরিশ্রমকে সম্মানের চোখেই দেখছেন। অনেক দূর যাওয়ার ইচ্ছা তার।

পরে অবশ্য ওই সংস্থার টুইটেই জানা যায়, প্রতিবন্ধী যুবক রামুকে কুর্নিশ জানিয়ে টুইট করেছেন অনেকে। রামু যাতে নিজের জন্য একটি বিদ্যুৎচালিত গাড়ি কিনতে পারেন, সেজন্য ক্রাউড ফান্ডিংয়ের প্রস্তাবও উঠে এসেছে। হয়তো একদিন সবার সুদৃষ্টিতে কষ্ট লাঘব হবে রামুর।

এসইউ/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :