বিএসএমএমইউ’র নতুন ভিসি কনক কান্তি বড়ুয়ার নিয়োগে প্রজ্ঞাপন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৩৩ পিএম, ১৯ মার্চ ২০১৮

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) নতুন ভিসি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বিএসএমএমইউ’র নিউরো সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান ও সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ তাকে এ নিয়োগ দেন। তিনি আগামী ২৪ মার্চ, শনিবার ভাইস-চ্যান্সেলর-এর দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন।

বিএসএমএমইউ জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রশান্ত মজুমদার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ১৫ মার্চ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব জনাব বদরুন নাহার স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে (নং-স্বাপকম/চিশি-১/নিয়োগ-১(১১)/৯৮(অংশ)- বলা হয়, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ১৯৯৮ (১৯৯৮ সনের ১নং আইন)-এর ১২ ধারার ক্ষমতাবলে উক্ত বিশ^বিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও মহামান্য রাষ্ট্রপতি কর্তৃক অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, সভাপতি, বাংলাদেশ কলেজ অফ ফিজিশিয়ান্স অ্যান্ড সার্জন্স (বিসিপিএস) এবং চেয়ারম্যান, নিউরোসার্জারি বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়-কে ভাইস-চ্যান্সেলর হিসেবে ৩ (তিন) বছর মেয়াদে নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে। জনস্বার্থে এ আদেশ জারি করা হলো। এ আদেশ আগামী ২৪ মার্চ থেকে কার্যকর হবে।’

অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়–য়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতিরও দায়িত্ব পালন করেছেন।

দেশের চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ১৯৫৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের মিরের সরাই উপজেলার হাইত কান্দি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার মায়ের নাম প্রয়াত সুখদা বড়ুয়া এবং বাবার নাম প্রয়াত ডা. শুভংকর বড়ুয়া। পারিবারিক জীবনে তার স্ত্রী ডা. শিউলি চৌধুরী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস অ্যান্ড গাইনি বিভাগে সহযোগী অধ্যাপক হিসাবে কর্মরত আছেন। তিনি দুই সন্তানের জনক। বড় ছেলে ডা. সুদীপ বড়ুয়া এবং ছোট ছেলে সৌমিক বড়ুয়া আমেরিকতাতে পড়াশোনা করছেন।

অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ছাত্রজীবন থেকেই অত্যন্ত মেধাবী। তিনি ১৯৭৭ সালের এপ্রিল মাসে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। তিনি ১৯৯০ সালে এফসিপিএস, ২০০৩ সালে এমস (নিউরোসার্জারি), ২০০৪ সালে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৯৩ সালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে এফআইসিএস (এওয়ার্ডেড ফেলোশিপ অব ইন্টারন্যাশনাল কলেজ অব সার্জন্স) এওয়ার্ডে ভূষিত হন।

অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ২০১২ সালে শ্রীলঙ্কা থেকে অনারারী এফএসএলসিএস এবং কলেজ অফ ফিজিশিয়ান্স অ্যান্ড সার্জন্স, পাকিস্তান থেকে অনারারি এফসিপিএস ডিগ্রি অর্জন করেন। শিক্ষকতার জীবনে তিনি সাবেক আইপিজিএমএন্ডআর এবং রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়)-এ ১৯৯১ সাল থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত সহকারী অধ্যাপক হিসেবে, ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত সাবেক আইপিজিএমএন্ডআর এবং বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে শিক্ষকতা করেছেন।

তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০০১ সাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত অধ্যাপক হিসাবে শিক্ষকতা পেশার সাথে যুক্ত আছেন।

উল্লেখ্য যে, ২০০২ সালে তিনি অধ্যাপক পদে পদোন্নতি বঞ্চিত হওয়ার কারণে হাইকোর্টে রিট করেন (রিট নং ২৯১০) এবং এ রিটের পরিপ্রেক্ষিতে ২০০৭ সালে তাঁকে ভূতাপেক্ষভাবে ২০০১ সাল থেকে অধ্যাপক পদে পদোন্নতি দেয়া হয়।

২০১৫ সালে তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোসার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যানের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। বর্ণাঢ্যময় শিক্ষাজীবনের অধিকারী অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া ২০১০ সাল থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত তিন তিন বার ডিন নির্বাচিত হয়ে সার্জারি অনুষদের ডিনের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক বডি সিন্ডিকেটের সদস্য।

তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এবং রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়েরও সিন্ডিকেট মেম্বার। দেশের চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা গুণী এই শিক্ষকের ইতমধ্যে ৪৭টিরও বেশি গবেষণালব্ধ প্রবন্ধ, নিবন্ধ দেশি-বিদেশি জার্নাল ও আন্তর্জাতিক নিউরোসার্জিকাল জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। গাইড হিসেবে তার তত্ত্বাবধানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন এমএস ইন নিউরোসার্জারি বিষয়ক ১৫টি থিসিস পরিচালিত হয়েছে।

এমইউ/এসএইচএস/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :