ন্যাশনাল মেডিকেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৪৯ পিএম, ২২ মে ২০১৮

বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আজও এক ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করেছেন ঢাকা ন্যাশনাল মেডিকেল ইনস্টিটিউট হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ কর্মবিরতি পালন করেন। আন্দোলনে সাড়া দেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, তবে কঠিন কর্মসূচি পালনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আন্দোলনকারী নেতারা।

কর্মবিরতি পালনকালে আন্দোলনকারী নেতারা বলেন, রোগীদের চিকিৎসাসেবাসহ হাসপাতালের সার্বিক কার্যক্রমে যেন বাধাগ্রস্ত না হয় সেজন্য তারা শান্তিপূর্ণভাবে কর্মবিরতি পালন করেছেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি। তারা বলেন, প্রয়োজনে কঠিন কর্মসূচি ঘোষণাসহ যে কোনো মূল্যে তাদের ন্যায্য দাবি পূরণে কর্তৃপক্ষকে বাধ্য করা হবে।

কর্মবিরতি কর্মসূচিতে হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, ওয়ার্ডবয়সহ বিভিন্ন শ্রেণির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশ নেন। হাসপাতালের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন তারা।

সমাবেশে বক্তারা ন্যাশনাল হাসপাতালের চলমান সঙ্কট দূর করতে আজও স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। একই সঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতির সমাধান ও জাতীয়করণের দাবি জানান।

উল্লেখ্য, পুরান ঢাকার বেসরকারি এ হাসপাতালের ডাক্তার, নার্স ও ওয়ার্ডবয়সহ বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুই থেকে পাঁচ মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। বছর দুয়েক আগে ভাতা পেলেও এখন তা পান না। অবসরকালীন গ্র্যাচুইটি ১২০ মাস থেকে কমিয়ে ৬০ মাস করা হয়েছে। এছাড়া দুই বছর আগের ৯ মাসের বকেয়া বিলও এখন দেয়া হচ্ছে না।

এসব দাবি নিয়ে মানববন্ধন, অবস্থান ধর্মঘটসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হলেও কর্তৃপক্ষ দাবি পূরণ না করায় এসব কর্মসূচি পালনে বাধ্য হচ্ছেন বলে জানান তারা।

এমইউ/জেএইচ/আরআইপি