মিরপুরের ইসলামী জেনারেল হাসপাতালে স্বল্প খরচে করোনা রোগীর চিকিৎসা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৮ পিএম, ১৪ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৭:২০ পিএম, ১৪ জুন ২০২১

দেশে করোনাভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ মোকাবিলার প্রস্তুতি চলছে। এমন পরিস্থিতিতে মোকাবিলায় করোনায় আক্রান্ত রোগীদের স্বল্প খরচে চিকিৎসা সেবা চালু করেছে রাজধানীর মিরপুরের ইসলামী জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার। সম্প্রতি এ হাসপাতালে করোনা ইউনিট চালু হয়েছে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, গত বছরের মাঝামাঝি মিরপুর ৬০ ফিটে ইসলামি জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক প্রতিষ্ঠিত হয়। ২৫ শয্যার এ হাসপাতালের একটি অংশে কোভিড ইউনিট চালু করা হয়েছে। যেখানে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত চারটি কেবিন ও আলাদা পুরুষ-নারী ওয়ার্ড এবং আইসিইউতে ছয়টি বেড স্থাপন করা হয়েছে।

হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্সদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সেখানে ২৪ ঘণ্টা চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়ে থাকে। সার্বক্ষণিক চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারীসহ মোট ২৭ জন কর্মী রয়েছে। এছাড়া, প্রতিদিন বিকেলে দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালের বিভিন্ন বিশেষজ্ঞরা এখানে রোগী দেখেন। রোগীদের বিশেষ কোনো বিষয়ে বিশেষজ্ঞের প্রয়োজন হলে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকেও হাসপাতালে আনার ব্যবস্থা করা হয়।

jagonews24

এ হাসপাতালে কোভিড ইউনিটের পাশাপাশি করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়ে থাকে।

হাসপাতালে ভর্তি এক রোগীর স্বজন জানান, এখানে মনোরম পরিবেশে নিবিড়ভাবে চিকিৎসা সেবা পাওয়া যায়। সবসময় চিকিৎসক ও নার্সদের পাওয়া যাচ্ছে। সব ধরনের টেস্টেরও ব্যবস্থা আছে।

নিবিড় পরিচর্যায় দ্রুত সময়ের মধ্যে রোগী সুস্থ হয়ে উঠছেন বলেও জানান তিনি।

হাসপাতালের প্রসূতি ও গাইনি বিভাগের সিনিয়র চিকিৎসক ডা. হুমায়রা হক জাগো নিউজকে বলেন, সুন্দর মনোরম পরিবেশে ইসলামি জেনারেল হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনিস্টক সেন্টারটি গড়ে তোলা হয়েছে। এখানে সকল বিষয়ের অভিজ্ঞ চিকিৎসক রয়েছেন। স্বল্প খরচে এখানে রোগী দেখা হয়ে থাকে।

jagonews24

হাসপাতালের পরিচালক তাহমিনা ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, স্বল্প খরচে কোভিড ও ননকোভিড রোগীদের আমরা ২৪ ঘণ্টা হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকি। আমাদের এখানে আইসিইউ সুবিধা রয়েছে। আধুনিক মেশিনারিজ সংগ্রহ করে একটি ল্যাব তৈরি করা হয়েছে। সেখানে নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

তিনি আরও বলেন, এখানে নমুনা পরীক্ষার আধুনিক যন্ত্রাংশসহ সিনিয়র বিশেষজ্ঞ রয়েছেন। সার্জারি, বেড ভাড়া, নমুনা পরীক্ষাসহ সব ধরনের ব্যয় রোগীর সাধ্যের মধ্যে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এমএইচএম/এসএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]