বাংলাদেশিদের কম খরচে চিকিৎসা দেবে থাইল্যান্ডের থেপটারিন হাসপাতাল

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৫৮ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০২২
থেপটারিন হাসপাতাল ও সিয়ো নয় হেলথ অ্যান্ড ট্রাভেলসের মধ্যে চুক্তি সই অনুষ্ঠান

 

বাংলাদেশিদের জন্য সাশ্রয়ী মূল্যে বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবার প্রতিশ্রুতি নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে থাইল্যান্ডের প্রথম ডায়াবেটিক সেন্টার হাসপাতাল থেপটারিন।

সুখবর হচ্ছে, বাংলাদেশি রোগীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চিকিৎসায় বিশেষ ছাড় দিচ্ছে হাসপাতালটি। তাই এ সময়ে অপেক্ষাকৃত অনেক কম খরচে প্রয়োজন অনুযায়ী চিকিৎসা সেবা নিতে পারবেন রোগীরা।

jagonews

সম্প্রতি থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে হাসপাতালটির সঙ্গে অংশীদারত্বমূলক চুক্তি সম্পন্ন করেছে ‘সিয়ো নয় হেলথ অ্যান্ড ট্রাভেলস’। এর ফলে হাসপাতালটি থেকে বাংলাদেশিরা পাবেন দেশের সমপরিমাণ খরচেই থাইল্যান্ডের স্বাস্থ্যসেবা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার সুযোগ।

থেপটারিন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. তাওয়ান চিতচুলমম ও সিয়ো নয় হেলথ অ্যান্ড ট্রাভেলসের পরিচালক কানলায়াউই ওয়ায়েক্লেহং নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এ চুক্তি সই করেন।

১৯৮৫ সালে প্রতিষ্ঠিত থেপটারিন থাইল্যান্ডের পুরোনো হাসপাতালগুলোর একটি। হাসপাতালটি বেসরকারি হওয়া সত্ত্বেও কম খরচে স্থানীয়দের চিকিৎসাসেবা দিয়ে থাকে।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে ডা. তাওয়ান চিতচুলমম বলেন, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, যেকোনো সার্জারি ও দাঁতের চিকিৎসায় সুনাম রয়েছে থেপটারিন হাসপাতালের। বর্তমানে হাসপাতালটিতে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দক্ষ ও স্বনামধন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

হাসপাতালের প্রধান সেবাগুলোর মধ্যে আছে- মেডিসিন, সার্জারি, অবস্টেট্রিক্স অ্যান্ড গাইনোকোলজি, পেডিয়াট্রিক, ডায়াবেটিস, থাইরয়েড, অবেসিটি, কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ ও ডেন্টাল ইত্যাদি।

কানলায়াউই ওয়ায়েক্লেহং বলেন, থাইল্যান্ডে মানসম্মত সেবার জন্য স্থানীয়দের কাছে বিশ্বস্ত একটি হাসপাতাল হচ্ছে থেপটারিন। এখানে আন্তর্জাতিকমানের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা নেওয়া সবার পক্ষে সম্ভব হয় না। তাই আমরা আরও কম খরচে একই মানের চিকিৎসাসেবা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি নিয়ে থেপটারিনের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি।

এসময় ‘সিয়ো নয়’ কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাজেদুল হক বলেন, থাইল্যান্ডে যে আন্তর্জাতিক হাসপাতালগুলো রয়েছে, সেগুলোর খরচ অনেক বেশি। তাই আমরা স্থানীয়দের মধ্যে জনপ্রিয় থেপটারিন হাসপাতালে বাংলাদেশিদের সুচিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় সেবা দিচ্ছি।

ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় থাইল্যান্ডে প্রথম হাসপাতাল হিসেবে ২০১৭ সালে থাইল্যান্ড’স হসপিটাল (এইচএ) অ্যাক্রিডিটেশন সনদ অর্জন করে থেপটারিন। এছাড়া, হাসপাতালটি থাইরয়েডের চিকিৎসায় ২০২১ সালেও দেশটিতে প্রথম হিসেবে এইচএ সম্মান অর্জন করে।

থেপটারিন হাসপাতালে হৃদযন্ত্রের চিকিৎসায় রোগীদের জন্য চারটি হেলদি হার্ট প্যাকেজ রয়েছে। ৫০ শতাংশ ছাড়ে এ প্যাকেজগুলোর ফি ১৬ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

এ ছাড়া ডায়াবেটিস রোগীদের চিকিৎসায় থেপটারিনে রয়েছে, ডায়াবেটিস রিস্ক অ্যাসেসমেন্ট সার্ভিস, লাইফস্টাইল মডিফিকেশন সার্ভিস, ব্লাড গ্লুকোজ কন্ট্রোল সার্ভিস, আই কেয়ার সার্ভিস, ফুট অ্যান্ড উন্ড কেয়ার সার্ভিস ও ডায়াবেটিস কমপ্লিকেশন কেয়ার সার্ভিস।

রোগীদের প্লাজমা গ্লুকোজ, কিডনি ফাংশন, লিপিড প্রোফাইলসহ মোট ১৭ ধরনের স্বাস্থ্য পরীক্ষায় মোট খরচ ১০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৫৫ হাজার টাকার মধ্যে।

থেপটারিন হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার জন্য ফোন কলে অথবা হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ করতে পারেন ০১৭৮৪১১২৪০০ নাম্বারে। এছাড়াও https://www.facebook.com/Sueanoi9on ফেসবুক পেজের মাধ্যমে বিস্তারিত জানা যাবে।

এসএএইচ

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।