কারাগারে নিজ খরচে এসি টিভি পাচ্ছেন নওয়াজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:২৭ পিএম, ১৪ জুলাই ২০১৮

রাওয়ালপিন্ডির উচ্চ-নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্পন্ন আদিয়ালা কারাগারে প্রথম রাত কাটালেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। ‘বি’ ক্লাস সুবিধাযুক্ত বরাদ্দকৃত কারাকাষ্ঠে শীতাতপ নিয়ন্ত্রক (এসি), টেলিভিশন, বিছানা ও ফ্যান পেয়েছেন তারা।

পাকিস্তানের কারাগারে ‘বি’ ক্লাস বন্দিরা অন্য সাধারণ বন্দিদের চেয়ে একটু বেশি সুযোগ-সুবিধা পান। নওয়াজ ও মরিয়মের ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। কারাকাষ্ঠে এসি এবং টেলিভিশনের ব্যয় বহন করতে তাদের।

দুর্নীতির মাধ্যমে লন্ডনে বিলাসবহুল চারটি ফ্ল্যাট কেনার দায়ে ৬৮ বছর বয়সী নওয়াজ ও ৪৪ বছরের মরিয়ম নওয়াজকে শুক্রবার গ্রেফতার করা হয়। দুর্নীতির দায়ে আদালতের ঘোষিত ১০ বছরের দণ্ড মাথায় নিয়ে শুক্রবার লন্ডন থেকে লাহোরে ফিরেন তারা। সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবি হয়ে লাহোরে ফেরার সঙ্গে সঙ্গে তাদের গ্রেফতার করেন আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা।

বিশেষ বিমানে করে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী ও তার মেয়েকে লাহোর থেকে ইসলামাবাদে নেয়া হয়। পরে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা পুলিশি গাড়িবহরের মাধ্যমে সেখান থেকে পৃথক গাড়িতে করে নেয়া হয় আদিয়ালা কারাগারে।

তবে স্থানীয় কিছু গণমাধ্যম বলছে, রাজধানী ইসলামাবাদের একটি রেস্ট হাউসকে সাব-জেল ঘোষণার পর আদিয়ালা কারাগার থেকে শরিফকে সেখানে স্থানান্তর করা হতে পারে।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য নিউজ বলছে, দেশটিতে বন্দিদের সামাজিক অবস্থান, শিক্ষা অথবা জীবন-যাপনের অভ্যাস অনুযায়ী কারাগারে বন্দিদের শ্রেণি নির্ধারণ করা হয়। এসব বিবেচনা করে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী ও তার মেয়েকে কারাগারে ‘বি’ ক্লাসের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হয়েছে।

স্বাভাবিকভাবে ‘এ’ অথবা ‘বি’ ক্লাসের বন্দিরা শিক্ষিত হয়ে থাকেন এবং তারা কারাগারের অশিক্ষিত ‘সি’ ক্লাসের বন্দিদের শিক্ষাদান করেন। কারাগারে তাদের কঠোর কাজ করতে হয় না। মামলার শাস্তি হিসেবে উপকারী কাজের সঙ্গে তাদের নিযুক্ত করা হয়।

‘এ’ এবং ‘বি’ শ্রেণির কারাকাষ্ঠে সাধারণ একটি পাত্র, একটি চেয়ার, একটি চায়ের পাত্র ও বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকলে একটি লণ্ঠনের ব্যবস্থা করা হয়। এছাড়াও একটি তাক, প্রয়োজনীয় ওয়াশ রুম ও টয়লেট থাকে।

দুর্নীতির দায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করায় আগামী ২৫ জুলাই দেশটির সাধারণ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না তিনি। তবে নির্বাচনে অংশ নিতে না পারলেও গ্রেফতারের আগে লন্ডন থেকে এক টুইট বার্তায় জানান, তার রাজনৈতিক দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) কর্মীদের সংগঠিত করতে দেশে ফিরছেন তিনি।

দুর্নীতির মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে লন্ডনে চারটি বিলাসবহুল বাড়ি কেনার দায়ে গত সপ্তাহে পাকিস্তানের একটি আদালত নওয়াজ ও তার মেয়েকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করেন। এতে নওয়াজকে ১০ বছর ও তার মেয়ে মরিয়মকে সাত বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। অবৈধ সম্পত্তির মালিকানার দায়ে ও পানামা পেপারর্স কেলেঙ্কারিতে নাম আসায় আরো দুটি মামলা চলমান রয়েছে নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে।

সূত্র : পিটিআই, দ্য নিউজ, ডন।

এসআইএস/জেআইএম