দ্বিতীয় দিনের মতো ইদলিবে হামলা চালিয়েছে সিরীয় বাহিনী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০৫ পিএম, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ইদলিবে দেশটির সরকারি বাহিনীর হামলায় পাঁচজন নিহত হয়েছে। ওই এলাকায় দ্বিতীয় দিনের মতো ভারী বোমা হামলা চালিয়েছে সরকারি বাহিনী। উদ্ধারকর্মীদের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরা বলছে, এ অঞ্চলে তুরস্ক আরো সৈন্য পাঠানোর প্রেক্ষিতে এ হামলা চালিয়েছে সিরীয় বাহিনী।

রোববার থেকে আসাদ বাহিনী দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় ইদলিব এবং উত্তরাঞ্চলীয় হামা প্রদেশের গ্রামগুলোতে বিমান হামলা, বোমা নিক্ষেপসহ হেলিকপ্টারের মাধ্যমে ব্যারেল বোমা হামলা চালায়।

সিরিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ অঞ্চল ইদলিবে গত কিছুদিন ধরে চলা হামলার ফলে এলাকাজুড়ে মারাত্মক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। রাশিয়া এবং আসাদ বাহিনী দেশটির শেষ বিদ্রোহী অধ্যুষিত এ অঞ্চলে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত হামলা চালাচ্ছে।

যুদ্ধাহতদের উদ্ধারকারী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হোয়াইট হেলমেটসের সদস্যরা জানিয়েছে, ইদলিবের দক্ষিণাঞ্চলীয় একটি গ্রামে ব্যারেল বোমা হামলায় শিশুসহ দু'জন নিহত হয়েছে। এছাড়াও উত্তরাঞ্চলীয় হামা প্রদেশে বিমান হামলা এবং গোলাবর্ষণে বিদ্রোহীদের এক কর্মকর্তা নিহত হয়েছে।

হামা প্রদেশের হোয়াইট হেলমেটের সদস্য আল করিম আল রহমান বলেন, বোমা হামলা থেকে বাঁচতে জনবসতিপূর্ণ ওই অঞ্চলের অর্ধেকের বেশি মানুষ বাড়ি-ঘর ছেড়ে চলে গেছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস বলছে, গত ৭২ ঘন্টায় সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ বাহিনী এবং তার মিত্র রাশিয়ান বাহিনী বিদ্রোহী অধ্যুষিত এ অঞ্চলে ১০৬০ বার বিমান হামলা, গোলাবর্ষণ এবং ব্যারেল বোমা হামলা চালিয়েছে।

টিটিএন/এমএস