সার্জিক্যাল স্ট্রাইকে বাঘের মল-মূত্র ব্যবহার করে ভারতীয় সেনা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:১০ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানের ভেতরে ঢুকে জঙ্গি আস্তানায় চালানো ভারতীয় সেনাবাহিনীর অভিযান সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের সময় অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে চিতাবাঘের মল-মূত্র ব্যবহার করা হয়েছিল। দুই বছর আগে চালানো এই অভিযানের অন্যতম সদস্য জম্মু-কাশ্মিরের নওসেরা সেক্টরের সাবেক ব্রিগেড কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল রাজন্দ্র নিমবোরকর এ তথ্য জানিয়েছেন।

২০১৬ সালে পাকিস্তানের ভূখণ্ডের ১৫ কিলোমিটার ভেতরে ঢুকে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালিয়েছিল ভারতীয় সেনাবাহিনী। সীমান্তের ওই ঝটিকা অভিযানে পাকিস্তানের ২৯ জঙ্গি নিহত হয়। অভিযানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় নিমবোরকরকে বিশেষ পুরস্কার তুলে দিলেন মহারাষ্ট্রের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা মনোহর যোশি।

নিমবোরকর বলেন, অভিযানের আগে তিনি পুরো এলাকার খুঁটিনাটি জেনে নিয়েছিলেন। সেক্টরে থাকাকালীন আমাদের অভিজ্ঞতা হয়েছিল, ওই এলাকায় কুকুরের উপর হামলা চালায় চিতাবাঘের দল। ভয়ে রাতের দিকে এলাকার বাইরে বেরোয় না কুকুর।

আরও পড়ুন : এ যেন আরেক রসু খাঁ : দিনে দর্জি, রাতে ভয়ঙ্কর খুনি

তিনি বলেন, 'রণনীতি ঠিক করার সময় আমরা জানতাম ওই রুটে গ্রামে ঢোকার সময় কুকুর চিৎকার করে উঠবে। কুকুরের হামলা ঠেকাতে চিতাবাঘের মল ও মূত্র সঙ্গে নেয়া হয়েছিল। গ্রামের বাইরে তা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দেয়া হয়। এটা ভালো কাজে দেয়। কুকুর চুপচাপ গ্রামের ভেতরেই ছিল।'

সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের বিষয়টি অত্যন্ত গোপন রাখা হয়েছিল বলেও জানান সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা। তিনি বলেন, তৎকালীন প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহর পারিকর আমাদের বলেছিলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে অভিযান চালাতে। এক সপ্তাহ আগেই আমি বাহিনীকে বিষয়টি জানাই। তবে ঠিক কোথায় এই অভিযান চলবে, তা প্রকাশ করি আক্রমণের একদিন আগে।

এসআইএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :