আমার দম বন্ধ হয়ে আসছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫৪ পিএম, ১১ নভেম্বর ২০১৮

তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে অবস্থিত সৌদি কনস্যুলেটে নিহত সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করার মুহূর্তে অডিও রেকর্ডিংয়ের তথ্য ফাঁস করেছেন তুরস্কের একজন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক। তিনি বলেছেন, ঘাতকদের হাতে নিহত হওয়ার আগ মুহূর্তে বেঁচে থাকার তীব্র আকুতি জানিয়েছিলেন খাশোগি। খবর পার্স ট্যুডে।

তুর্কি পত্রিকা ডেইলি সাবাহর ক্রাইম বিভাগের প্রধান নাজিফ কারামান বলেছেন, ঘাতকরা খাশোগিকে হত্যা করার জন্য তার মাথার উপর একটি ভারী ব্যাগ রেখেছিল।

গত ২ অক্টোবর ব্যক্তিগত কাজে তুরস্কের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করে নির্মমভাবে নিহত হন জামাল খাশোগি। সৌদি সরকার দীর্ঘদিন অস্বীকার করার পর তাকে হত্যা করার কথা স্বীকার করলেও এখন পর্যন্ত তার মরদেহের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

তুর্কি সাংবাদিক কারামান আল জাজিরাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, অডিওতে খাশোগিকে বলতে শোনা গেছে, আমার দমবন্ধ হয়ে আসছে। আমার মাথার উপর থেকে ব্যাগটি সরাও। আমি ভীষণ ভয় পাচ্ছি।

কারামান যে অডিওর বরাত দিয়ে এ তথ্য প্রকাশ করেছেন তুর্কি সরকার বলছে, সেটি দিয়ে প্রমাণ করা যাবে যে, গত ২ অক্টোবর সৌদি কনস্যুলেটে খাশোগিকে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী হত্যা করা হয়েছে। তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান বলেছেন, ওই অডিও রেকর্ড সৌদি কর্মকর্তাদের পাশাপাশি পশ্চিমা দেশগুলোর গোয়েন্দা সংস্থার হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

সাংবাদিক কারামান আরো বলেছেন, শ্বাসরুদ্ধ হয়ে খাশোগির মৃত্যু হতে সাত মিনিট সময় লাগে। কারামান তুর্কি সরকারের ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি হিসেবেও পরিচিতি। তিনি তুর্কি গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানান, সৌদি আরব থেকে আসা ঘাতক বাহিনী খাশোগির মৃত্যুর পর ১৫ মিনিটের মধ্যে তার দেহ টুকরো টুকরো করে ফেলে। এরপর সেখান থেকে খাশোগির মরদেহ সরিয়ে ফেলা হয়। কিন্তু তার মরদেহ কোথাও সরানো হয়েছে তা তদন্ত করেও জানা সম্ভব হয়নি।

টিটিএন/এমএস