অতিরিক্ত পরিশ্রমে ইন্দোনেশিয়ার ২৭০ নির্বাচনী কর্মীর মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৪৭ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৯

ইন্দোনেশিয়ার ২৭০ জনেরও বেশি নির্বাচনী কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে একদিনে বিশ্বের সবচেয়ে বড় নির্বাচনে অতিরিক্ত পরিশ্রম করেই তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে দেশটির কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

গত ১৭ এপ্রিল ইন্দোনেশিয়ার স্থানীয় সরকার ও পার্লামেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই নির্বাচনের ফলাফল প্রস্তুতে অতিরিক্ত সময় কাজ করে এবং হাতে লাখ লাখ ব্যালট পেপার গণনা করার কারণে ক্লান্ত ও পরিশ্রান্ত হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

দেশটির নির্বাচন কমিশনের মুখপাত্র আরিফ প্রিয় সুশান্ত বলেন, নির্বাচনী কাজের চাপে ২৭২ জনের মৃত্যু ছাড়াও আরও ১ হাজার ৮৭৮ জন কর্মী অসুস্থ হয়েছেন। প্রায় ৭০ লাখ মানুষ সেই ভোটের ফলাফল তৈরির জন্য কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন>> ইন্দোনেশিয়ায় একদিনে বিশ্বের বৃহত্তম নির্বাচনের ভোট হচ্ছে

দিনরাত ব্যালট পেপার গণনার কাজ করে বেশিরভাগ নির্বাচনী কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। তবে এসব কর্মীর বেশিরভাগ নির্বচনী কাজ পরিচালনা করতে স্বল্প মেয়াদের জন্য নিয়োগ পেয়েছেন।

গত ১৭ এপ্রিল প্রথমবারের মতো ইন্দোনেশিয়ার প্রায় ২০ কোটি মানুষ দেশটির প্রেসিডেন্ট, জাতীয় ও আঞ্চলিক পার্লামেন্টের প্রতিনিধি নির্বাচনে ভোট দেন। নির্বাচনী খরচ কমাতেই এক দিনে ভোট গ্রহণ করার এ উদ্যোগ নেয়া হয়।

নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে দেশটির মোট ভোটারের ৮০ শতাংশ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ভোট গ্রহণে দেশজুড়ে আট লাখ কেন্দ্র ছিল। প্রত্যেক ভোটর পাঁচটি পৃথক ব্যালট পেপার ব্যবহার করে ভোট দেন।

আরও পড়ুন>> প্রথম তিন দফার ভোটে বিজেপির ভরাডুবির আভাস

গত ২৩ এপ্রিল দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অসুস্থ নির্বাচনী কর্মীদের সর্বোচ্চ সেবা দিতে হাসপাতালগুলোকে নির্দেশ দিয়ে একটি চিঠি ইস্যু করে। তাছাড়া যেসব নির্বাচনী কর্মীর মৃত্যু হয়েছে তাদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে অর্থ মন্ত্রণালয় কাজ করছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের মুখপাত্র সুশান্ত।

আগামী ২২ মে ভোট গণনা শেষ করে প্রেসিডেন্ট ও সংসদীয় আসনে বিজয়ীদের ফলাফল ঘোষণা করবে দেশটির নির্বাচন কমিশন। তবে বেসরকারি ফলাফল অনুযায়ী, বর্তমান প্রেসিডেন্ট উইদোদো এগিয়ে রয়েছেন।

এসএ/পিআর