অভিনন্দনকে আটক করা সেই পাক সেনা নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০২ এএম, ২১ আগস্ট ২০১৯

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভারতীয় যুদ্ধবিমান গুলি করে ভূপাতিত করার পর দেশটির পাইলট উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে আটক করে পাকিস্তান। আটকের পর যে পাকিস্তানি সেনা তাকে অত্যাচার করেছিলেন, সম্প্রতি ভারতীয় সেনাদের গুলিতে নিহত হয়েছেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের মাটিতে ভারতীয় বিমান ভেঙে পড়ার পর উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে আটক করেন পাক সেনার সুবেদার আহমেদ খান। অভিনন্দনকে শুরুতে মারধরও করা হয়। পাক সেনার সেই সুবেদার ভারতীয় সেনাদের গুলিতে নিহত হয়েছেন। গত ১৭ আগস্ট সীমান্তরেখার নকিয়াল রেঞ্জে ভারতের মাটিতে জঙ্গি অনুপ্রবেশ করানোর চেষ্টা করছিলেন সুবেদার আহমেদ খান। সে সময় ভারতীয় সেনার পালটা গুলিতে তার মৃত্যু হয়।

আহমেদ খান পাক সেনার বিশেষ বাহিনীর সুবেদার। অভিনন্দন বর্তমান ধরা পড়ার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য যে ছবি পাকিস্তান প্রকাশ করেছিল, সেই ছবিতে আহমেদ খানকে দেখা যায়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে আরও বলা হয়েছে, আহমেদ খানই অভিনন্দকে আটক করেন। আটকের পর ওপর অত্যাচার চালান। গত ১৭ আগস্ট তিনি নিহত হয়েছেন। তবে আহমেদ খানের মৃত্যুর বিষয়টি স্বীকার করেনি পাকিস্তান সরকার। সুবেদার আহমেদকে গুলি করে হত্যার মাধ্যমে অভিনন্দনের ওপর হওয়া অত্যাচারের প্রতিশোধ নিল ভারতীয় সেনা।

উল্লেখ্য, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের মাটিতে ভেঙে পড়ে ভারতীয় বিমানবাহিনীর মিগ-২১ বিমান। তখনই পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর হাতে আটক হন উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। তার আগের দিন পাকিস্তানে ঢুকে বিমান হামলা চালায় ভারত। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ আত্মঘাতী হামলা চালালে দেশটির অন্তত ৪০ জন সেনা নিহত হন।

এমএসএইচ/জেআইএম