নেপালে ভারতীয় চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৪৮ এএম, ১০ জুলাই ২০২০

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলিকে অসম্মানের অভিযোগে দেশটিতে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বেশ কিছু ভারতীয় চ্যানেলের সম্প্রচার। বৃহস্পতিবার নেপাল সরকারের মুখপাত্র যুবরাজ খতিওয়াদা ভারতীয় সংবাদ চ্যানেলে প্রধানমন্ত্রী ওলিকে নিয়ে ‘ভিত্তিহীন’ ও ‘অপমানজনক’ সংবাদ প্রচারের জেরে আইনি ও রাজনৈতিক ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দেয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই বন্ধ করে দেয়া হয় বেশ কিছু ভারতীয় চ্যানেল।

যদিও নেপাল সরকার বলছে, তাদের এখতিয়ার থাকলেও এখন পর্যন্ত এ ধরনের কোনও নির্দেশনা দেয়া হয়নি। দেশটির ক্যাবল অপারেটররা স্বপ্রণোদিত হয়ে নিজেরাই ভারতীয় চ্যানেলের প্রচার বন্ধ করে দিয়েছেন।

এদিন যুবরাজ খতিওয়াদা বলেন, ‘আমাদের দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন এবং নেপালি জনগণের জাতীয়তা, সার্বভৌমত্ব ও মর্যাদা ক্ষতিগ্রস্ত করায় দায়ী ভারতীয় গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার পূর্ণ অধিকার রয়েছে সরকারের। আমরা তাদের এ ধরনের সংবাদ প্রচার না করতে আহ্বান জানিয়েছি।’

নেপালি সংবাদমাদ্যম কাঠমাণ্ডু পোস্ট জানিয়েছে, সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদ চ্যানেল জি নিউজে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেশটিতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত হৌ ইয়ানকির সম্পর্কের বিষয়ে চাঞ্চল্যকর খবর প্রচার করা হয়েছে। চ্যানেলটি কোনও ধরনের প্রমাণ উপস্থাপন ছাড়াই ১৫ মিনিটের বেশি সময় ধরে নানা ভিত্তিহীন অভিযোগ প্রচার করেছে।

এ নিয়ে নেপালের সাধারণ জনগণ থেকে শুরু করে সামাজিক ও রাজনৈতিক মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই প্রোপাগান্ডা প্রচারের জন্য ভারতীয় চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।

এছাড়া, ভারতের অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়াতেও নেপালকে নিয়ে আপত্তিকর সংবাদ প্রচারের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে নয়া দিল্লির নেপালি দূতাবাস। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অভিযোগও জানিয়েছে তারা।

নেপালে ভারতীয় সংবাদ চ্যানেল বন্ধের সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় ক্যাবল টিভি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি দিনেশ সুবেদি বলেন, ‘দেশপ্রেমের তাগিদে আমরা বেশ কিছু ভারতীয় সংবাদ চ্যানেলের প্রচার বন্ধ করে দিয়েছি। সরকারের কোনও নির্দেশনা নয়, ক্যাবল অপারেটরদের স্বাধীন সিদ্ধান্ত অনুসারেই এসব চ্যানেল বন্ধ করা হয়েছে।’

কেএএ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]