ফ্লয়েড হত্যায় দোষী সাব্যস্ত ডেরেক চৌভিনের পুনর্বিচারের আবেদন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২৩ এএম, ০৫ মে ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় জর্জ ফ্লয়েড হত্যা মামলায় দোষী সাব্যস্ত পুলিশ সদস্য ডেরেক চৌভিন নতুন করে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করার আবেদন জানিয়েছেন। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানা যায়।

এর আগে গত ২১ এপ্রিল তাকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করে ১২ সদস্যের জুরি বোর্ড। এই পুলিশ কর্মকর্তাই হাঁটু দিয়ে জর্জ ফ্লয়েডের ঘাড় চেপে টানা নয় মিনিট ধরে বসে আছেন, এমন একটি ভিডিও যুক্তরাষ্ট্রসহ সারাবিশ্বে গত বছর ক্ষোভের সৃষ্টি করেছিল।

পুনর্বিচারের পাশাপাশি ডেরেক চৌভিনের আইনজীবীরা আগের বিচার প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন অভিযোগ তুলে প্রসিকিউটর ও বিচারক উভয়পক্ষের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ দাখিল করেছেন।

তার আইনজীবী বিবিসিকে জানান, ডেরেক চৌভিন নিরপেক্ষ বিচার প্রক্রিয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। আদালতে দাখিল করা নথিতে তার আইনজীবী এরিক নেলসন জানান, বিচারপূর্ব প্রচার প্রক্রিয়ার কারণে এই বিচার প্রক্রিয়া নিরপেক্ষ হয়নি।

তিনি নথিতে উল্লেখ করেন, বিচারের আগে ও বিচারকালে এটি ‘এতটাই বিস্তৃত ও কুসংস্কারমূলক’ ছিল যে, এটিকে ‘বিচার প্রক্রিয়ার কাঠামোগত ত্রুটি’ হিসেবে চিহ্নিত করা যায়। এছাড়াও এতে বিচার প্রক্রিয়ায় দুর্বৃত্ততা এবং সাক্ষীদের ভয় দেখানো হয়েছিল বলে অভিযোগ তোলা হয়।

এই মামলায় ডেরেক চৌভিনকে দ্বিতীয় এবং তৃতীয়-ডিগ্রি হত্যা এবং দ্বিতীয়-ডিগ্রি বেআইনিভাবে অনিচ্ছাকৃত হত্যা হিসাবে দোষী সাব্যস্ত করা হয়।ফ্লয়েডকে হত্যায় পুলিশ কর্মকর্তা চৌভিনের বিরুদ্ধে আনা তিনটি অভিযোগই আদালতে প্রমাণ হয়েছে। ফলে চৌভিন ৪০ বছর কারাদণ্ডাদেশ পেতে পারেন।

আইন অনুযায়ী ‘দ্বিতীয় ডিগ্রী’ অনিচ্ছাকৃত হত্যার জন্য সর্বোচ্চ ৪০ বছর কারাদণ্ডাদেশ, ‘তৃতীয় ডিগ্রি’ হত্যার জন্য সর্বোচ্চ ২৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ‘দ্বিতীয় ডিগ্রি’ হত্যার জন্য সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড বা ২০ হাজার ডলার জরিমানা করা হতে পারে।

একজন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এমন রায় যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে একটি মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত এবং মার্কিনরা তা ব্যাপকভাবে প্রশংসা করেছিল।

এআরএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]