এবার পম্পেই নগরীতে কচ্ছপের দেহাবশেষের সন্ধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ২৫ জুন ২০২২
ছবি সংগৃহীত

আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে ধ্বংস হওয়া রোমের পম্পেই নগরীতে এবার কচ্ছপের দেহাবশেষ ও এর ডিমের সন্ধান পাওয়া গেছে। নগরীর প্রত্নতাত্ত্বিকরা এর উন্মোচন করেছেন। ৭৯ খ্রিষ্টাব্দে শহরটি ধ্বংস হয়।

ধারণা করা হচ্ছে কচ্ছপটি একটি গুদামের মাটির মেঝেতে লুকিয়ে ছিল ও সম্ভবত ভিসুভিয়াস অগ্ন্যুৎপাতের আগে এটির মৃত্যু হয়।

সেখানের নৃবিজ্ঞানী হিসেবে কাজ করেন ভ্যালেরিয়া অ্যামোরেটি। তিনি বলেন, ডিম পাড়ার জন্য এটি নিজেই একটি গর্ত খনন করেছিল, কিন্তু করতে ব্যর্থ হয়েছিল, যা এটির মৃত্যুর কারণ হতে পারে।

italy2

শুধু কচ্ছপের দেহাবশেষই নয়, এদিন সন্ধান মিলেছে বিভিন্ন প্রাণীর হাড় ও আসবাবপত্রেরও।

পম্পেইয়ে কর্মরত প্রত্নত্ত্ববিদ গ্যাব্রিয়েল যুস্তারিজেল বলেন, ৬২ খ্রিস্টাব্দে যে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়েছিলো সে সময়ই সাগর থেকে ঢেউয়ের সাথে উঠে এসেছিল বিভিন্ন প্রাণী। পাশেই যে ডিমগুলো পাওয়া গেছে সেগুলো নিয়েও গবেষণা চলছে। ওই সময় বন্য বা সামুদ্রিক প্রাণীদের অবস্থান কেমন ছিল সে সম্পর্কে ভালো একটা ধারণা মিলবে বলে আশা করছি।

৭৯ খ্রিস্টাব্দে আগ্নেয়গিরি ভিসুভিয়াসের লাভার নিচে হারিয়ে যায় পম্পেই নগরী। সে সময় প্রায় ১৩ হাজার মানুষের আবাস ছিল শহরটিতে। লাভার নিচে চাপা পড়া শহরটির সন্ধান মেলে ১৬ শতকে। ২০১০ সালে, পম্পেইকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করা হয়। শহরটির বড় একটি অংশ পুনরুদ্ধার করা হয় ২০১৩ সালে।

সূত্র: জিও নিউজ

এমএসএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]