মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহের ৬ মামলায় মাহমুদুর রহমানের আগাম জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৪১ পিএম, ৩০ জানুয়ারি ২০১৮
ফাইল ছবি

আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাংবাদিক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় দায়ের করা রাষ্ট্রদ্রোহ ও মানহানির পৃথক পৃথক ছয় মামলায় আগাম জামিন মঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে, তাকে আগামী দুই মাসে বা আট সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমপর্ণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করার পর তা শুনানি করে হাইকোর্টের বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও জেবিএম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে আজ আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আদিলুর রহমান খান শুভ্র। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ড. মো. বশিরউল্লাহ।

২০১৭ সালের ১ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের মানহানি এবং রাষ্ট্রের অস্থিতিশীল অবস্থা সৃষ্টির উস্কানি দিয়ে বক্তব্যদানের অভিযোগ এনে আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাংবাদিক মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে এক হাজার কোটি টাকার মানহানির পৃথক ছয়টি মামলা দায়ের করা হয়। জেলা হলো- যথাক্রমে কুষ্টিয়া, দিনাজপুর, বরিশাল, যশোর, টাঙ্গাইল ও কুড়িগ্রাম।

মামলার আর্জিতে বলা হয়, গত ০১/১২/১৭ তারিখে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিল নামে একটি ফোরামের অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ স্বাধীন রাষ্ট্র নয়, ভূখণ্ড মাত্র এবং বাংলাদেশ ভারতের কলোনি উল্লেখ করে বক্তব্য দেন মাহামুদুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘শেখ মুজিবুর রহমান গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমকে হত্যা করেছে। বর্তমান সরকার অবৈধ ও দিল্লীর তাবেদার’।

মামলার বাদি জানান, বাংলাদেশের অস্তিত্ব ও রাষ্ট্র সম্পর্কে অস্বীকৃতি জানিয়ে মাহমুদুর রহমান রাষ্ট্রদ্রোহী আচরণ করেছেন। তার এ ধরনের বক্তব্য স্বাধীনতা বিরোধী চেতনার মানুষদের উস্কে দিয়েছে। স্বাধীন বাংলাদেশে এ ধরনের বক্তব্য কখনই মেনে নেয়া যায় না। তার বক্তব্যের প্রমাণস্বরুপ একটি ইউটিউব ভিডিও আদালতে দাখিল করা হয়েছে।

এফএইচ/এআরএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :