সংসদে ১০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা চেয়ে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৪২ পিএম, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

জাতীয় সংসদ সদস্য এবং স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ১০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা সংরক্ষণের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেছেন এক আইনজীবী।

বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় বড়ুরা শিক্ষা এবং মানবকল্যাণ ট্রাস্টের পক্ষে অ্যাডভোকেট মো. আরিফুর রহমান এ রিট দায়ের করেন। রিটের পক্ষে আদালতে শুনানি করবেন আইনজীবী অ্যাভোকেট মহিনুল ইসলাম।

রিটকারী আইনজীবী আরিফুর রহমান নিজেই জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রিটে আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সচিব ও মুক্তিযোদ্ধা কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে বিবাদী করা হয়েছে।

হাইকোর্টের বিচারপতি মো. আসফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চে আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি (রোববার) এ রিটের শুনানি হতে পারে বলে জানান রিটকারী আইনজীবী।

আইনজীবী বলেন, জাতীয় সংসদসহ স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোতে নির্বাচনে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ১০ শতাংশ কোটা নির্ধারণের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে ১৯৭১ সালে জীবন বাজি রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন মুক্তিযোদ্ধারা। দেশ গড়তে তাদের অবদান অনস্বীকার্য।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় রয়েছে। কিন্তু সংসদের ও স্থানীয় সরকারে (ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, জেলা পরিষদ) কোটা ভিত্তিতে তাদের কোনো প্রতিনিধিত্ব নেই। তারা এ দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান। তারা মারা গেলে গার্ড অব অনার দিয়ে দাফন করা হয়, কিন্তু তাদের সুযোগ সুবিধা বিষয়ে স্থানীয় ও জাতীয় সংসদে কোনো প্রতিনিধিত্ব নেই। কিন্তু জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব রয়েছে মহিলা সংসদ সদস্যদের বিষয়ে।

এ আইনজীবী আরও বলেন, জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব থাকলে তাদের সকল সুবিধা নিশ্চিত করা যেত। আমি মনে করি মুক্তিযোদ্ধাদের সুযোগ সুবিধা অপ্রতুল। আমি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান। মুক্তিযোদ্ধাদের সকল বিষয়ে দেখা-শোনা করার জন্য জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব হবে।

এফএইচ/আরএস/পিআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :