হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৯ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৮
ফাইল ছবি

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচারিক কার্যক্রম চলা নিয়ে রিভিশন খারিজ করে দেয়া হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগে করা এ আবেদনের কথা জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। গত ১৪ অক্টোবর ওই রিভিশন খারিজ করেছিলেন হাইকোর্ট। পরবর্তীতে বিচারিক আদালত এ মামলার রায়ের জন্য ২৯ অক্টোবর দিন ধার্য করেন।

বকশীবাজার কারা অধিদফতরের মাঠে নির্মিত অস্থায়ী আদালত ভবনে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বিচারকাজ চলছিল। নিরাপত্তার কারণ উল্লেখ করে ৪ সেপ্টেম্বর ওই মামলার বিচার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রশাসনিক ভবনের ৭ নম্বর কক্ষকে অস্থায়ী আদালত হিসেবে ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার।

এদিকে গত ২১ সেপ্টেম্বর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়া ‘ইচ্ছাকৃতভাবে’আদালতে না আসায় তার অনুপস্থিতিতেই বিচার চলবে বলে আদেশ দেন আদালত। পুরানো কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান এ আদেশ দেন।

এর বিরুদ্ধে গত ২৭ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার বিচারের জন্য কারা অভ্যন্তরে যে আদালত স্থাপন করা হয়েছে তা অবৈধ দাবি করে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বিচার কাজ স্থগিত চেয়ে রিভিশন আবেদন জানান খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। একইসঙ্গে আবেদনটিতে খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে কারা অভ্যন্তরে স্থাপিত আদালতে তার বিচার চলবে বলে আদালত যে আদেশ দিয়েছেন তা বাতিল চাওয়া হয়। পরে দুই দিন শুনানি করে গত ১৪ অক্টোবর এ আবেদন খারিজ করেন হাইকোর্ট। এরপর তারা ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেন।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও আর্থিক জরিমানা করা হয়। রায় ঘোষণার পরপরই খালেদা জিয়াকে পুরানো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এফএইচ/এনডিএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :