দুই দফায় ইজতেমা আয়োজনের বিরুদ্ধে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০১৯
ফাইল ছবি

তাবলিগ জামাতের সর্ববৃহৎ বার্ষিক জমায়েত বিশ্ব ইজতেমা দুই দফা হওয়ার বিষয়ে জারি করা একটি সার্কুলারকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আইনজীবী অ্যাডভোকেট শাহ্ মো. নুরুল আমিন এ রিট আবেদন করেন। পরে রিটের বিষয়টি তিনি নিজেই জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

অ্যাডভোকেট শাহ্ মো. নুরুল আমিন বলেন, ধর্ম মন্ত্রণালয় দুই দফায় বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনের জন্য যে সার্কুলার জারি করেছে সেটা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়েছে। রিটে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ চারজনকে বিবাদী করা হয়।

প্রসঙ্গত, তাবলিগ-জামাতের ভেতরে দুটি পক্ষের দ্বন্দ্ব চলছে কিছুদিন ধরে। চলমান এ দ্বন্দ্ব-সংঘাতের কারণে পূর্বনির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না এবারের বিশ্ব ইজতেমা।

ভারতীয় উপমহাদেশে সুন্নি মুসলমানদের বৃহত্তম সংগঠন তাবলিগ-জামাতের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রথম প্রকাশ্য রূপ পায় ২০১৭ সালে। ওই বছর সংগঠনটির দুই পক্ষের মধ্যে সহিংসতার ঘটনাও ঘটে। এ দ্বন্দ্বের কেন্দ্রে ছিলেন তাবলিগ-জামাতের কেন্দ্রীয় নেতা ভারতীয় মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্দালভি।

তিনি তাবলিগ-জামাতে এমন কিছু সংস্কারের কথা বলছেন, যা বিভক্তির সৃষ্টি করেছে। এ বিভক্তি এখন ছড়িয়ে পড়েছে সারা বিশ্বের তাবলিগ-জামাতের অনুসারীদের মধ্যে।

সাদ কান্দালভির মতে, ‘ধর্মীয় শিক্ষা বা ধর্মীয় প্রচারণা অর্থের বিনিময়ে করা উচিত নয়।’ মিলাদ বা ওয়াজ মাহফিলের মতো কর্মকাণ্ডও এর মধ্যে পড়ে বলে মনে করেন তিনি।

তিনি মনে করেন, ‘মাদরাসাগুলোর শিক্ষকদের মাদরাসার ভেতরে নামাজ না পড়ে মসজিদে গিয়ে নামাজ পড়া উচিত, যাতে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়ে।’

কিন্তু তার বিরোধীরা বলছেন, ‘কান্দালভি যা বলছেন তা তাবলিগ-জামাতের প্রতিষ্ঠাতা নেতাদের নির্দেশিত পন্থার বিরোধী। তাদের বক্তব্য, কান্দালভির কথাবার্তা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের বিশ্বাস ও আকিদার বাইরে।

এফএইচ/এআর/এমএমজেড/জেআইএম/এসজি

আপনার মতামত লিখুন :