ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার হতে দেব না

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৭ পিএম, ১৪ জুলাই ২০১৯

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আমি আবারও পরিষ্কার করতে চাই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন জনগণের সাংবিধানিক অধিকার- বাক ও ভাব প্রকাশের স্বাধীনতা এবং সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ব্যাহত করার জন্য প্রণয়ন করা হয়নি। এটি করা হয়েছে শুধুমাত্র সাইবার অপরাধ দমন করার জন্য।

তিনি বলেন, আমি পরিষ্কার করতে চাই এই আইনের অপব্যবহার আমরা হতে দেবো না। সেজন্য যা যা করা প্রয়োজন আমরা তা করব।

রোববার বিকেলে রাজধানীর গুলশানে নিজের আবাসিক অফিসে বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত রেন্সজি তেরিনকের নেতৃতে ১১ সদস্যের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি একথা বলেন। বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডিয়ান হাইকমিশনারও এই বৈঠকে অংশ নেন।

ব্রিফিংয়ে বৈঠকের বিষয়বস্তু তুলে ধরতে গিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে ওনাদের কিছু কনসার্ন ছিল। সেই কনসার্নগুলোর অগ্রগতি জানার জন্যই মূলত ওনারা এসেছিলেন।

তিনি বলেন, আজ মূলত আইনটির ৪৩ ধারা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমি ওনাদের কথা শুনেছি এবং এটার ব্যাপারে সরকারের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করব বলে তাদের আশ্বাস দিয়েছি। এছাড়া এই আইনের বিধিমালা প্রণয়নের সময় এ বিষয়ে আবারও তাদের সঙ্গে কথা বলার আশ্বাস দিয়েছি।

আইনমন্ত্রী বলেন, আমার কথা হচ্ছে কেউ যেন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার করতে না পারে সেটা রোধে আমরা সবাইকে সহযোগিতা করব এবং সেই ব্যবস্থা করব। আর আইনটির যে ধারা নিয়ে স্টেক হোল্ডারদের কিছু অংশ আপত্তি জানাচ্ছে- সেটার ব্যাপারে আমরা দেখব।

এফএইচ/জেএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :