মূল পরিকল্পনাকারী তামিম, লক্ষ্য ছিল আইএসের দৃষ্টি আকর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৫১ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০১৯

তিন বছর আগে হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা ও নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় করা মামলার রায় দিয়েছেন আদালত। রায়ে আট আসামির মধ্যে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড ও একজনকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২৭ নভেম্বর) ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে আদালত কিছু পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন।

আদালত রায়ে উল্লেখ করেন, ‘হলি আর্টিসান হামলার মূল পরিকল্পনাকারী ও সমন্বয়কারী ছিল তামিম চৌধুরী। আসামি আসলাম হোসেন র‌্যাশ তার দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে উল্লেখ করেন, ‘‘আমি তখন তামিম ভাইয়ের কাছে গুলশান বা কোনো কূটনৈতিক এলাকায় আক্রমণের উদ্দেশ্য জানতে চাই। তামিম ভাই বলে যে, আমাদের সংগঠন নব্য জেএমবি আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএস দ্বারা অনুপ্রাণিত। আইএসের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্যই গুলশানের কূটনৈতিক এলাকায় হামলা করা প্রয়োজন।”

কাজেই এটা প্রতিষ্ঠিত যে, তামিম চৌধুরীর নেতৃত্বে হলি আর্টিসান হামলা সংঘটিত হয়। বাংলাদেশে তথাকথিত জিহাদ কায়েমের লক্ষ্যে জননিরাপত্তা বিপন্ন করার জন্য জনমনে আতঙ্ক তৈরি করা এবং আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএসের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য তামিম চৌধুরীর পরিকল্পনায় নব্য জেএমবির সদস্যরা গুলশান হলি আর্টিসানে হামলা করে নির্মম ও নিষ্ঠুরভাবে গ্রেনেড, আগ্নেয়াস্ত্র, ধারালো চাপাতি দিয়ে ১৭ জন বিদেশি ও চারজন বাংলাদেশি নাগরিক ও দুজন পুলিশ অফিসারকে হত্যা করে এবং অনেককে গুরুতর আহত ও জিম্মি করে।

হলি আর্টিসান মামলার রায়ের সব খবর পড়ুন এক ক্লিকে

জেএ/এমএআর/জেএইচ/জেআইএম