সনদের দাবিতে শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের অনশন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২৩ পিএম, ০৯ জুলাই ২০২০

২০১৭ ও ২০২০ সালের প্রিলিমিনারি (নৈর্ব্যক্তিক) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রায় ১৩ হাজার শিক্ষানবীশ আইনজীবী বাংলাদেশ বার কাউন্সিল থেকে আইনজীবী সনদের গেজেট দেয়ার দাবিতে সুপ্রিম কোর্ট চত্বরে অনশন করছেন।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকাল থেকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ভবনের প্রধান প্রবেশ পথের সামনে এ কর্মসূচি পালন করছেন তারা। দেশের বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে পাস করার পর বার কাউন্সিল থেকেও এমসিকিউতে উত্তীর্ণ আইনের শিক্ষার্থীরা এতে অংশ নিয়েছেন।

Supreme-2

আন্দোলনকারীর জানান, প্রতি বছর বার কাউন্সিল পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ার নিয়ম থাকলেও তা মান হচ্ছে না। ২০১৭ সালের পর সর্বশেষ চলতি বছর আরেকটি এমসিকিউ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু করোনাকে কেন্দ্র করে আমাদের লিখিত পরীক্ষা আয়োজনের কোনো চেষ্টা বার কাউন্সিল করছে না। অথচ পরীক্ষার আসায় থেকে থেকে আমাদের জীবনের মূল্যবান সময় নষ্ট হচ্ছে। তাই আমরা সনদের দাবিতে ২০১৭ ও ২০২০ সালের এমসিকিউ পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ শিক্ষানবীশ আইনজীবীরা এই অনশনে সমবেত হয়েছি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

নুর মোহাম্মদ নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, পরবর্তী ধাপের পরীক্ষায় না হওয়ায় করোনাকালে আমরা ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে দিনযাপন করছি। করোনাকালে বার কাউন্সিল থেকে আইনজীবীদের আর্থিক সহায়তা করা হলেও আমাদের কেউ একটি পয়সা দিয়েও সহযোগিতা করেনি। আবার এ মুহূর্তে অন্য পেশায় যাওয়ার আমাদের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। তাই মানবিক দিক বিবেচনা করে হলেও আমাদের সনদ প্রদান করে গেজেট প্রকাশের মাধ্যমে আইন পেশায় যুক্ত হওয়ার সুযোগ চাইছি।

Supreme-2

আগে শুধুমাত্র মৌখিক পরীক্ষার (ভাইভা) মাধ্যমে আইনজীবীদের সনদ প্রদান করা হতো। তবে দিন দিন শিক্ষার্থীদের চাপ বাড়তে থাকায় আইনজীবী হতে বর্তমানে নৈর্ব্যক্তিক, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় শিক্ষর্থীদের উত্তীর্ণ হতে হয়। আবার ওই তিন ধাপের যেকোনো একটি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীরা একবার উত্তীর্ণ হলে পরবর্তী পরীক্ষায় তারা দ্বিতীয় ও শেষবারের মতো অংশগ্রহণের সুযোগ পান। তবে দ্বিতীয়বারেও অনুত্তীর্ণ হলে তাদেরকে পুনরায় শুরু থেকেই পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়। সে অনুসারে ২০১৭ সালের ৩৪ হাজার শিক্ষর্থীর মধ্যে থেকে ৩ হাজার ৫৯০ শিক্ষার্থী এবং ২০২০ সালে প্রায় ৭০ হাজার শিক্ষানবীশ আইনজীবীর মধ্যে এমসিকিউ উত্তীর্ণ ৮ হাজার ৭৬৪ শিক্ষার্থীসহ মোট ১২ হাজার ৮৫৮ জন সনদ প্রত্যাশী দেশব্যাপী অনশনে সমবেত হয়েছেন।

করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের লিখিত ও ভাইভা মওকুফ করে আইনজীবী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে গেজেট প্রকাশের দাবিতে গত ৭ জুলাই বার কাউন্সিলের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা। এরপর তারা সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে অনশন কর্মসূচি শুরু করেন।

এফএইচ/এমএসএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]