মামলা-আবেদন দায়েরে তামাদি মেয়াদ বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৪ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২০

দেশের বিভিন্ন আদালতে ফৌজদারি ও দেওয়ানি মামলা, আবেদন, আপিলসহ এ সংশ্লিষ্ট সকল আবেদন দায়েরের তামাদির মেয়াদ আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাড়িয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ছয় সদস্যের আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদেশের সময় আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আদালতের সঙ্গে সংযুক্ত ছিলেন- রাষ্টের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা, সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ এফ হাসান আরিফ, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন প্রমুখ।

সংবিধানে প্রদত্ত ১০৪ অনুচ্ছেদের ক্ষমতাবলে এ আদেশ দেন আদালত। আদালত আদেশে বলেন, যেসব ফৌজদারি, দেওয়ানি ও প্রশাসনিক আদালত বা ট্রাইব্যুনালে মামলা-মোকদ্দমা, আবেদন, আপিল, রিভিশনের মেয়াদ গত ২৬ মার্চ তামাদি হয়েছে সেসব মামলা-মোকদ্দমা, আবেদন, আপিল, রিভিশনের মেয়াদ আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হলো।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ও সংক্রমণের কারণে গত ২৬ মার্চ থেকে সুপ্রিম কোর্টসহ দেশের সকল অধস্তন আদালতের স্বাভাবিক বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। গত ৯ মে রাষ্ট্রপতি ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনার অর্ডিন্যান্স জারি করেন। উক্ত অর্ডিন্যান্সের আলোকে ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনার জন্য গত ১০ মে সুপ্রিম কোর্ট, উচ্চ আদালত এবং অধস্তন আদালতের জন্য পৃথক পৃথক প্র্যাকটিস নির্দেশনা জারি করা হয়।

এরপর ভার্চুয়াল আদালতের বিষয়ে আইন তৈরির পর দেশের আদালতসমূহে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বিচারকার্য পরিচালনা শুরু হয়। তবে গত ৫ আগস্ট থেকে দেশের অধস্তন আদালতসমূহে শারিরীক উপস্থিতির মাধ্যমে বিচারকার্য শুরু হয়। তবে এখনও সুপ্রিমকোর্টের আপিল ও হাইকোর্টে শারিরীক উপস্থিতিতে বিচার কার্য শুরু হয়নি।

এফএইচ/এফআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]