গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার রিট শুনবেন হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৫৮ এএম, ২৫ নভেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি

দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের গণপরিবহনে (ট্রেন, বাস ও লঞ্চে) ভাড়া অর্ধেক করার দাবিতে দায়ের করা রিট আবেদনের শুনানি করতে সায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিষয়টি উপস্থাপনের পর বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ আবেদনটি আগামী রোববার (২৮ নভেম্বর) কার্যতালিকায় রাখার আদেশ দেন।

এদিন আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন রিটকারী আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।

গতকাল বুধবার (২৪ নভেম্বর) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় জনস্বার্থে এ রিট করেন অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ। রিটের বিষয়টি তিনি নিজেই জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন। রিটে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের গণপরিবহনে (ট্রেন, বাস ও লঞ্চে) ভাড়া অর্ধেক করার দাবি জানানো হয়।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ও পুলিশ মহাপরিদর্শককে রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

এ বিষয়ে রিটকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ বলেন, করোনার কারণে দেড় বছরেরও বেশি সময় স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ছিল। এরপরও শিক্ষার্থীদের বেতন-ভাতা কমানো হয়নি। এর মধ্যে আবার জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর কারণে পরিবহনের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। এখন বাসভাড়া অর্ধেক করার দাবিতে শিক্ষার্থীরা রাজধানীর বিভিন্ন রাস্তায় নেমেছে। তাদের এ দাবির প্রেক্ষাপটে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের ভাড়া অর্ধেক করার দাবিতে রিট আবেদন করা হয়েছে।

চলতি মাসে তেলের দাম বাড়ানোর পরিপ্রেক্ষিতে বাড়ানো হয় বাসের ভাড়া। এরমধ্যে শিক্ষার্থীরা দাবি জানাচ্ছেন, তাদের জন্য অর্ধেক ভাড়া বা হাফ পাস চালুর। গত কয়েকদিনে ঢাকার সায়েন্সল্যাব, ফার্মগেটসহ কয়েকটি স্থানে এ দাবিতে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) সূত্রে জানা গেছে, নভেম্বরের শুরুতে ডিজেলের মূল্য বাড়লে গাড়িভাড়া বাড়ানোর দাবিতে অঘোষিত ধর্মঘট শুরু করেন বাস, ট্রাকসহ পণ্যবাহী যানবাহনের মালিকরা। এ অবস্থায় বাসভাড়া পুনর্নির্ধারণের দায়িত্বে থাকা বিআরটিএ গত ৭ নভেম্বর পরিবহন মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠকে নতুন ভাড়া নির্ধারিত হয়। সেখানে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়ার বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি।

রিটের বিষয়ে অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ জানান, সংবিধানের ১৫ (১), ১৭, ২৮ (৪) ৩১ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী- অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসাসহ জীবনের মৌলিক উপকরণের ব্যবস্থা নিশ্চিত করবে রাষ্ট্র। এছাড়া, একই পদ্ধতির গণমুখী শিক্ষা ও সার্বজনীন শিক্ষাব্যবস্থাকে সঙ্গতিপূর্ণ করতে হবে।

তিনি জানান, অনেক দেশে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার খরচ সরকার বহন করে। কিন্তু আমাদের দেশে ট্যাক্সসহ বিভিন্ন পন্থায় অভিভাবক থেকে টিউশন ফি, বেতন ও নানা খাতে টাকা নেওয়া হয়। এসব অবস্থা বিবেচনায় দেশের সব ধরনের সরকারি ও বেসরকারি বাস, ট্রেন ও লঞ্চে শিক্ষার্থীদের ভাড়া অর্ধেক করার নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়।

এফএইচ/এমকেআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]