মহাসড়ক নয় সড়কে চলবে ব্যাটারিচালিত থ্রি-হুইলার

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫২ পিএম, ০৪ এপ্রিল ২০২২
ফাইল ছবি

স্বাস্থ্যের জন্যে ক্ষতিকর ব্যাটারিচালিত অবৈধ ইজিবাইক (থ্রি-হুইলার) চিহ্নিত করে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। আদালতের দেওয়া ওই আদেশ সংশোধন করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। সংশোধিত আদেশে ইজিবাইক ও থ্রি-হুইলার হাইওয়েতে চলতে পারবে না বলে জানিয়েছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে সড়ক থেকে সরানোর যে নির্দেশ আগে ছিল সেটি এখন সংশোধন হয়ে শুধুমাত্র মহাসড়ক থেকে সড়ানোর নির্দেশ আসলো। একই সঙ্গে থ্রি-হুইলার আমদানি ও ক্রয়-বিক্রয়ে দেওয়া নিষেধাজ্ঞাও তুলে নিয়েছেন আদালত।

এছাড়া থ্রি-হুইলার নিয়ে হাইকোর্টে জারি করা রুল নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে। তবে কতদিনে কোন আদালতে সেটি শুনানি ও নিষ্পত্তি হবে তা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়নি আদেশে।

আমদানিকারকের পক্ষে করা আপিল আবেদন শুনানি নিয়ে সোমবার (৪ এপ্রিল) প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে তিন সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

বাংলাদেশ ইলেকট্রিক থ্রি-হুইলার ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যান্ড মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, নবাবপুরের পক্ষ থেকে এ আপিল আবেদন করা হয়। সংগঠনের সভাপতি হাজি কামাল উদ্দীন আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক মো. আহসান সামাদের নেতৃত্বে আট ব্যবসায়ী হাইকোর্টে ইজিবাইক নিয়ে দেওয়া রায়ের মামলায় পক্ষভুক্ত হয়ে আপিল আবেদন করেন। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে এই আদেশ দেন আপিল বিভাগ।

আদালতে আজ সংগঠনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর। তিনি জানান, এর আগে প্রকৃত মালিকদের সংগঠনের বিবাদী না করে এক রিটের শুনানি নিয়ে গত ১৫ ডিসেম্বর হাইকোর্ট বেঞ্চ একটি দ্বৈত বেঞ্চ ব্যাটারিচালিত থ্রি-হুইলার বন্ধের নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে, এগুলো আমদানি ও ক্রয়-বিক্রয়ে নিষেধাজ্ঞাও দেন আদালত। আজ সংগঠনের পক্ষ থেকে পক্ষভুক্ত হয়ে করা আপিল আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে এসব বাহন ক্রয়- বিক্রয় ও চলাচলে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার আদেশ সংশোধন করেছেন আপিল বিভাগ। একই সঙ্গে শুধু হাইওয়ে ছাড়া অন্যান্য সড়কে ইজিবাইক ও থ্রি-হুইলার চলতে পারবে বলে আদেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ। ফলে এখন থেকে মহাসড়ক বাদে অন্য যেকোনো সড়কে এসব বাহন চলতে আর কোনো বাধা নেই।

এর আগে ২০২১ সালের ১৩ ডিসেম্বর বাঘ ইকো মোটরস লিমিটেডের সভাপতি কাজী জসিমুল ইসলামের পক্ষে হাইকোর্টে রিটটি করা হয়। রিটে শিল্প সচিব, সড়ক পরিবহন সচিব, পরিবেশ সচিবসহ সাতজনকে বিবাদী করা হয়।

ওই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত এই আদেশ দেন। একই সঙ্গে শিল্প মন্ত্রণালয় ও এনবিআরে রিটকারীর করা আবেদন নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এফএইচ/কেএসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]