রাজুব ভৌমিকের ‘আয়না সনেটে’ বিশ্ব মিডিয়া তোলপাড়

সাহিত্য ডেস্ক সাহিত্য ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪১ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কবি ও লেখক ড. রাজুব ভৌমিক চলতি বছরের শুরু থেকে বাংলা সনেটের নতুন ধারা সৃষ্টি করতে ‘আয়না সনেট’ পদ্ধতির প্রচলন করেন। আয়না সনেটগুলো দুই দিক তথা ডান এবং বাম থেকে সাবলীলভাবে পড়া যায়। সম্প্রতি তার সনেটগুলো বিশ্ব মিডিয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। আন্তর্জাতিক কয়েকটি সংবাদমাধ্যম এ নিয়ে আলোচনা করেছে।

কবি রাজুব ভৌমিক জানান, কবিতাগুলো দুই দিক থেকেই চৌদ্দ অক্ষরের, চৌদ্দ লাইন বিশিষ্ট, ককখখ, গগঘঘ, ঙঙচচ, এবং ছছ অন্তমিল নিয়ে সাজানো। আয়না সনেটগুলো সাধারণত পর্ব বিন্যাস রীতি মেনে চলে না। কিছু আয়না সনেট আবার চারদিক (ডান, বাম, উপর এবং নিচ) থেকে পড়া যায়।

জানা যায়, এ রীতিতে বিশ্বের কোন সাহিত্যে সনেট লেখা হয়নি। তাই ইতোমধ্যে ‘আয়না সনেট’ নিয়ে বিশ্ব গণমাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। সিএনএন-নিউজ১৮ এ রাজুব ভৌমিকের আয়না সনেটগুলোকে ‘সাহিত্যের বিস্ময়কর’ সনেট হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। নিউজ সাইটটি আরও উল্লেখ করেছে, ‘আয়না সনেটগুলো নিখুতভাবে চৌদ্দ লাইনে লেখা, প্রত্যেক সনেট চারটি লাইনের তিনটি স্তরে বিভক্ত এবং শেষের দুটি লাইনে সংক্ষিপ্ত-সার রয়েছে।’

ইয়াহু লাইফস্টাইলে ‘মিরর সনেট : মিট রাজুব ভৌমিক, দ্য পয়েট হু পায়োনিয়ারড আয়না সনেট’ শিরোনামে কবি রাজুব ভৌমিক এবং তার সৃষ্ট আয়না সনেট বা মিরর সনেট নিয়ে একটি গবেষণামূলক লেখা প্রকাশ হয়েছে। এতে আয়না সনেটের উৎপত্তি সম্পর্কে বিস্তারিত লেখা হয়েছে। সংবাদমাধ্যমটি আরও উল্লেখ করেছে, ‘আয়না সনেটগুলো একেবারে ব্যতিক্রমী সনেট, যা অতীতের ফরাসি এবং শেক্সপীয়রীয় সনেটগুলোর চেয়ে দুর্দান্ত।’

rajub-in

দ্য ইন্টারন্যাশনাল বিজনেজ টাইমস ‘ফ্রম এ টিনেজ পয়েট টু ক্রিয়েটর অব আয়না সনেট, পয়েট্রি ইজ লাইফ ফর রাজুব ভৌমিক’ শিরোনামে কবির জীবন এবং সৃষ্টি আয়না সনেটের ভিন্নতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেছে। আরও উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আয়না সনেটের সাথে প্যালিনড্রোম কবিতার সামান্য মিল আছে। আগে প্যালিনড্রোম পদ্ধতিতে সাধারণ কবিতা লেখা হয়েছে। কিন্তু কখনো সনেট লেখা হয়নি।’

আন্তর্জাতিক পত্রিকা দ্য এশিয়ান এজ ‘রাজুব ভৌমিকস আয়না সনেটস আর রিডার্স ডিলাইট’ শিরোনামে আয়না সনেটের বন্দনা করেছে। সেখানে আরও বলা হয়, ‘রাজুব ভৌমিকের কবিতার প্রতি গভীর-গভীর ভালোবাসা তাকে আয়না সনেট তৈরি করতে পরিচালিত করেছে। আয়না সনেটগুলো একটি নির্দিষ্ট প্যাটার্ন অনুসরণ করে, যা শব্দের একটি দুর্দান্ত খেলার সাথে জড়িত।’

এছাড়াও জনপ্রিয় সংবাদ-মাধ্যম দ্য স্টেটসম্যান, ফ্রি প্রেস জার্নালসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে আয়না সনেটের সৃষ্টির পেছনে কবি রাজুব ভৌমিকের অসামান্য অবদানের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

কবি, লেখক ও প্রফেসর ড. রাজুব ভৌমিকের জন্ম নোয়াখালী জেলার কবিরহাট থানার শ্রীনদ্দি গ্রামে। ওটার হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তার শিক্ষাজীবন শুরু। যুক্তরাষ্ট্রে রাজুব ভৌমিক একটি স্নাতক ডিগ্রি, চারটি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি এবং দুটি ডক্টরেট ডিগ্রি (পিএইচডি ও ডক্টরেট অব সাইকোলোজি) সম্পন্ন করেন।

বর্তমানে আরও দুটি ডক্টরেট ডিগ্রিতে অধ্যয়নরত। গত পাঁচ বছর ধরে জন জে কলেজ, সিটি ইউনিভার্সিটি নিউইয়র্কে তিনি অপরাধবিদ্যা, আইন ও বিচার বিভাগে অধ্যাপনা করছেন। এছাড়া হসটস কলেজ, সিটি ইউনিভার্সিটি নিউইয়র্কে মনস্তাত্ত্বিক বিভাগে অধ্যাপনা করছেন।

গত সাত বছর ধরে নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ ডিপার্টমেন্টে (এনওয়াইপিডি) কাউন্টার টেরোরিজমে কর্মরত আছেন। তার প্রকাশিত মোট বইয়ের সংখ্যা বিশটিরও বেশি। সিটি ইউনিভার্সিটি নিউইয়র্কে তার প্রকাশিত তিনটি বই পাঠ্যপুস্তক হিসেবে নিয়মিত পড়ানো হয়।

এসইউ/এমকেএইচ