‘জলাবদ্ধতা নিরসনে নতুন মাস্টারপ্ল্যান জরুরি’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩২ পিএম, ১৬ জুলাই ২০১৭

স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ঢাকার জলাবদ্ধতাসহ নানা সমস্যা নিরসনে স্ট্যান্ডার্ড এরিয়া নির্ধারণের মাধ্যমে নতুন একটি মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করা জরুরি। সে অনুযায়ী কাজ করলে আশা করা যায় আগামীতে ঢাকায় জলাবদ্ধতা থাকবে না।

রোববার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নগর ভবনে আয়োজিত নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে আন্তঃবিভাগীয় সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সমবায়মন্ত্রী বলেন, ঢাকা ওয়াসার একার পক্ষে জলজট দূরীকরণ সম্ভব নয়। জলাবদ্ধতার সঙ্গে যেসব প্রতিষ্ঠান জড়িত তাদের সঙ্গে আমরা তিন মাস পরপর খোলামেলা আলোচনায় বসব। সেখান থেকেই সমাধানের পথ বের করব। এছাড়া জলাবদ্ধতা নিরসনের মূল দায়িত্ব সিটি কর্পোরেশনকে দিলে ভালো হবে।

সভায় অংশ নিয়ে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ঢাকা একটি নিম্নাঞ্চল এলাকা। ঢাকা শহরের বর্তমান সমস্যা সমাধানে আশপাশের নদীগুলোর গভীরতা বাড়াতে হবে। সব ঢাকা শহরের বাসা-বাড়ির মলমূত্র স্যুয়ারেজ সিস্টেমে নিয়ে যাওয়া উচিত। একই সঙ্গে ঢাকা ওয়াসার স্যুয়ারেজ সিস্টেম নিয়ে নতুন করে পরিকল্পনা করা প্রয়োজন।

তিনি বলেন, নদী-খালের দখলদারদের উচ্ছেদ করতে হবে জোড়ালোভাবে। এজন্য দখল বাড়ি ভাঙতে হলে ভেঙে ফেলুন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, রাজধানীর জলাবদ্ধতা একটি বড় সমস্যা। জলাবদ্ধতা দূর করতে হলে প্রথমে এখানকার খালগুলোকে দখলমুক্ত করতে হবে। আর যদি তা না করা হয়, তাহলে জলাবদ্ধতা থেকে রেহাই পাওয়া যাবে না। প্রয়োজনে আইন প্রণয়ন করে খালগুলো দখলমুক্ত করা উচিত। সেই সঙ্গে সম্মিলিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা দরকার, আর সব প্রতিষ্ঠান একসঙ্গে কাজ করা।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের সভাপতিত্বে সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব, ঢাকা-১১ আসনের সংসদ সদস্য কে এম রহমত উল্লাহ, ডিএনসিসির ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ বিভিন্ন সেবা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

এএস/জেডএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :