অভিবাসন ব্যয় সহনীয় পর্যায়ে কমাতে একযোগে কাজ করতে হবে

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৫০ পিএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭
অভিবাসন ব্যয় সহনীয় পর্যায়ে কমাতে একযোগে কাজ করতে হবে
ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে মানবপাচার বিরোধী আইন কঠোরভাবে বাস্তবায়নের পাশাপাশি অভিবাসন ব্যয় সহনীয় পর্যায়ে নামিয়ে আনতে বিশ্বের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

অভিবাসীদের বিরুদ্ধে যেকোনো প্রকার হিংসা, ঘৃণা ও বৈষম্যমূলক আচরণের অবসানসহ অভিবাসী শ্রমিকদের জন্য আইন ও বিধি প্রণয়নের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক শ্রমসংস্থার স্ট্যান্ডার্ড বজায় রাখতে সবাইকে সচেষ্ট থাকার উপরও গুরুত্বারোপ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসনিা আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উপলক্ষে এক বাণীতে এ কথা বলেন। আজ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দেশে দিবসটি পালিত হবে। বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাসগুলোতেও দিবসটি পালনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বাণীতে বলেন, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় রূপকল্প ২০২১ ও রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সক্ষম হব।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে অভিবাসীগণ অন্যতম সহায়ক শক্তি। অভিবাসীদের প্রেরিত অর্থে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড সম্প্রসারিত হচ্ছে। বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় বৃদ্ধিসহ বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ সমৃদ্ধকরণে অভিবাসী কর্মীদের উল্লেখযোগ্য অবদান রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার অভিবাসন ব্যবস্থাপনাকে স্বচ্ছ ও গতিশীল করতে বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। আমরা বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসী আইন, ২০১৩ প্রণয়ন করেছি। বিদেশে গমনেচ্ছুকর্মীদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে।

তিনি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ‘আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস’ উপলক্ষে বাংলাদেশসহ বিশ্বে বিভিন্ন দেশে কর্মরত ও বসবাসরত অভিবাসী ভাইবোন ও তাদের পরিবারের সদস্যদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান এবং এ উপলক্ষে গৃহীত সব কর্মসূচির সাফল্য কামনা করেন।

এফএইচএস/জেএইচ