পর্যটন শিল্পে বিরূপ প্রভাব রোহিঙ্গাদের কারণে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩৫ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৮
পর্যটন শিল্পে বিরূপ প্রভাব রোহিঙ্গাদের কারণে

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল বলেছেন, মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের কারণে দেশের পর্যটন শিল্পে বিরূপ প্রভাব পড়েছে।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে বিকেলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের মুলতবি বৈঠক শুরু হয়। রোববার শুরু হয় সংসদের শীতকালীন অধিবেশন। এরপর রাষ্ট্রপতির ভাষণের পর মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত সংসদের বৈঠক মুলতবি করা হয়।

মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের কারণে দেশের অন্যতম প্রধান পর্যটন গন্তব্য বান্দরবান, কক্সবাজারসহ এ এলাকার পর্যটন শিল্পের উপর বিরূপ প্রভাব পড়ছে। তবে পর্যটকদের নির্বিঘ্নে চলা-ফেরার বিষয়ে ট্যুরিস্ট পুলিশ, স্থানীয় প্রশাসনসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরগুলো তৎপর রয়েছে। এছাড়া দেশের পর্যটন গন্তব্যে পর্যটকদের ভ্রমণে আকৃষ্ট করার জন্য প্রচার-প্রচারণাসহ নানা ধরনের কার্যক্রম নেয়া হচ্ছে।

সরকারি দলের সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন ও বিকাশে বর্তমান সরকারের গৃহীত কার্যক্রমের ফলে পর্যটক আগমনের সংখ্যা প্রতি বছরই বাড়ছে।

তিনি বলেন, ২০১৫ সালে দেশে মোট ভ্রমণকারীর সংখ্যা ছিল ছয় লাখ ৪৩ হাজার ৯৪ জন। ২০১৬ সালে এ সংখ্যা বেড়ে সাত লাখ ১৬ হাজার ৭২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। পর্যটকদের বেশিরভাগই ভারত, চীন, জাপান, নেপাল, শ্রীলংকা, ভুটান, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, নেদারল্যান্ডের নাগরিক।

এইচএস/এএইচ/আইআই