রাজধানীতে গ্যাস সংকট : জ্বলছে না চুলা

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল
মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:২৫ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০১:৩০ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮

রাজধানীর আজিমপুরের বাসিন্দা বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী গৃহবধূ উম্মে হাবিবা প্রতিদিন সকালে স্কুল পড়ুয়া ছেলে-মেয়ে ও ব্যবসায়ী স্বামীর জন্য দুপুরের খাবার রান্না করে তারপর অফিসে রওয়ানা হন। হটপটে করে নিজের জন্যও নিয়ে যান লাঞ্চ।

কিন্তু গত দু’দিন যাবত লাইনে গ্যাস না থাকায় ঘরে রান্নাবান্না বন্ধ। এ সময় বাইরে থেকে খাবার কিনে খেতে বাধ্য হয়েছেন। বিকেলে অফিস থেকে ফিরেই তথৈবচ অবস্থা। এক কাপ চা খাবেন সেই পানিও গরম করার জো নেই।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে উম্মে হাবিবা বলেন, তীব্র গ্যাস সংকটে খুব সমস্যায় পড়েছেন। সকাল ৭টা বাজতে না বাজতেই গ্যাস চলে যায়। লাইনে টিপ টিপ করে গ্যাস আসায় রান্নাবান্না বন্ধের উপক্রম হয়েছে। অনেক গৃহবধূ চুলায় হাড়ি চড়িয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে গ্যাস আসার অপেক্ষা করছেন। গোসলের জন্য চুলায় পানি গরম করবো তারও জো নেই। তিনি জানতে চান, এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ মিলবে কবে ’?

এ প্রশ্ন শুধু আজিমপুরের উম্মে হাবিবার একারই নয়, রাজধানীর বিভিন্ন আবাসিক এলাকা- মোহাম্মদপুর, মিরপুর, মগবাজার, যাত্রাবাড়ি ও পুরান ঢাকার বেশ কিছু এলাকায় গ্যাসের তীব্র সংকট দেখা দেয়ায় এমন প্রশ্ন শত শত মানুষের। অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নিয়মিত গ্যাস বিল পরিশোধ করেও প্রয়োজনের সময় গ্যাস পাচ্ছি না।

তিতাস গ্যাস কর্মকর্তারা বলছেন গত কয়েকদিন যাবত রাজধানীতে তীব্র আকারে শীত জেঁকে বসেছে। এ কারণে আবাসিকে চাহিদা বহুগুণ বেড়ে যাওয়ায় গ্যাস সংকট দেখা দিয়েছে। তাছাড়া তীব্র শীতের কারণে বিভিন্ন লাইনে গ্যাস জমে যাওয়ায়ও স্বাভাবিক সরবরাহ বিঘ্নিত হচ্ছে।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিষ্ট্রিবিউশন লিমিটেডের পরিচালক (অপারেশন) প্রকৌশলী এইচ এম আলী আশরাফ বলেন, রাজধানীতে গ্যাসের চাহিদা ও ব্যবহার শতকরা ২০ ভাগ বেড়েছে। গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী গরমকালেই অনেক সময় গ্যাসের সরবরাহ ব্যাহত হয়, আর এখন শীতের কারণে চাহিদা অনেক বৃদ্ধি পাওয়ায় এ সংকট দেখা দিয়েছে।

এমইউ/এমএমজেড/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :