ডায়াগনস্টিক সেন্টারের আড়ালে মেডিনোভায় মাদকের ব্যবসা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৫ পিএম, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

শরীরের নানা সমস্যায় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য অনেকে মেডিনোভা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ছুটতেন। রোগীদের বিশ্বাস ছিল সেখানে ভালো সেবা পাবেন! কিন্তু মেডিনোভার প্রতি তাদের সেই বিশ্বাসে চিড় ধরছে। এই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসা সেবার আড়ালে চলে আসছিল জমজমাট মাদকের ব্যবসা।

কিন্তু তা হাতেনাতে ধরতে দীর্ঘদিন ধরে নজর রাখছিল মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। অবশেষে শুক্রবার এই মাদক ব্যবসার কার্যক্রমের খোঁজ পায় অধিদফতর। ফেন্সিডিল, গাঁজা, ক্যানবিয়ার ও বিপুল পরিমাণ মদের খালি বোতল জব্দ করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠানটির সুপারভাইজার আব্দুল গফুরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, গত ৩১ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে বিরোধী দলের সদস্যের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মাদকের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে অর্থাৎ ওইদিন রাতেই অভিযান চালানোর কথা বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর অধিদফতর আরও নড়েচড়ে বসে।

রাজধানীতে ভবঘুরে শিশু-কিশোরসহ মাদক ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে অভিযানে নামে অধিদফতর।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের ঢাকা মেট্রোপলিটন অঞ্চলের সহকারী পরিচালক (এডি) খুরশিদ আলম জানান, মাদকবিরোধী সাঁড়াশি অভিযানের প্রথম দিনে (শুক্রবার) রাজধানীর ধানমন্ডিতে অভিযান চালায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।

ধানমন্ডি ৫/এ এর ৭১ নং মেডিনোভা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ অভিযানে গিয়ে পাঁচ বোতল ফেন্সিডিল, পাঁচ বিয়ারক্যান, দুইশ’ গ্রাম গাঁজা, ২৫টি খালি মদের বোতল ও দুটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, অভিযানে গিয়ে দেখা যায় ডায়াগনস্টিক ব্যবসার আড়ালে অবৈধভাবে মাদকের ব্যবসা। সুপারভাইজার আব্দুর গফুরসহ প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জেইউ/জেডএ/এআরএস

আপনার মতামত লিখুন :