জাতিসংঘে বাংলা চেয়ে মানুষের আবেগ-উদ্বেল-সমর্থন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২৩ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের প্রথমবর্ষের ছাত্র শামসুজ্জামান হৃদয়। জাতিসংঘে সপ্তম দাপ্তরিক ভাষা বাংলা চেয়ে ইন্টারনেটে নিজের সমর্থন জানিয়ে ভোট দিয়েছেন তিনি। অমর একুশে বইমেলায় বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে জাগো নিউজের স্টলে এসে এ ভোট দিয়ে চলে যাওয়ার একটু পর আবার ফিরে এলেন। বললেন, ‘ভাই আমার আরেকটা ই-মেইল অ্যাড্রেস আছে। আমি আরেকটা ভোট দিতে পারব?’

‘জাতিসংঘে বাংলা চাই’ দাবিতে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে অনলাইন ক্যাম্পেইন চালিয়ে আসছে দেশের অন্যতম শীর্ষ নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কম।

জাগো নিউজের স্টলে ফিরে এসে আবার ভোট দেয়ার কারণ জানতে চাইলে শামসুজ্জামান হৃদয় বলেন, ‘জনসংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশ ষষ্ঠ। এত মানুষ বাংলায় কথা বলে, জাতিসংঘ অন্য ছয়টি ভাষার সঙ্গে বাংলাকে দাপ্তরিক ভাষা কেন করবে না? বাংলাকে আরও বড় মর্যাদার স্থানে নিয়ে যেতে সবারই এ ক্যাম্পেইনে সমর্থন জানানো উচিত।’

এভাবেই দেশপ্রেমে আবেগ-উদ্বেলে বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ জাগো নিউজের ‘জাতিসংঘে বাংলা চাই’ দাবির প্রতি সমর্থন জানাচ্ছেন।

bangla

লালবাগ থেকে মেলায় এসেছেন তরুণ শাহরিয়ার হোসাইন। তিনি অনলাইনে ভোট দেয়ার পর বলেন, ‘এ ধরনের বড় কাজের জন্য মাত্র একটি স্টল কেন বুঝলাম না। কমপক্ষে চার-পাঁচটি স্টল রাখা উচিত ছিল।’

যাত্রাবাড়ীর দনিয়া কলেজের শিক্ষার্থী ইফতেখার আহসান আবির বলেন, ‘আমি স্কাউট করি। আমি নিজে ভোট তো দিয়েছিই। বন্ধুদেরও ডেকে এনেছি ভোট দেয়ার জন্য। আমার মনে হয় আমার বাংলা ভাষার জন্য কিঞ্চিৎ হলেও কিছু একটা করলাম।’

বুধবার সন্ধ্যায় ভোট দিতে স্টলের সামনে সারি ধরে দাঁড়িয়ে যান এক ঝাঁক তরুণ। তাদের একজন মহসিন হোসেন। তিনি বলেন, ‘এটা হওয়া উচিত, এটা হলে আমাদের সম্মান আরও বাড়বে।’

এসেনসিয়াল ড্রাগ কোম্পানির জেনারেল ম্যানেজার (ক্রয়) সৈয়দ জহির উদ্দিন জামাল ভোট দিয়ে বলেন, ‘আপনারা অবশ্যই ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য। এ দাবি পূরণ হবে ইনশাআল্লাহ। আপনাদের যে কোনো সহায়তায় আমি আছি।’

সত্তর বছর পেরনো আবদুর রউফ মোল্লাও জাতিসংঘে বাংলা চেয়ে ভোট দেন। ভোট দেয়ার পর স্টলের ব্যস্ত দুই কর্মীর কাছে বারবার জানতে চান, ‘বাবা আপনাদের ভোট দেয়ার ঠিকানাটা বলবেন?’ তিনি বলেন, ‘বাসার লোকজনকেও ভোট দেয়াতে হবে। আপনাদের মতো আমরাও তো এইটাই চাই।’

গৃহিনী শাহনাজ বেগম স্টলের সামনের ফেস্টুন পড়ে এসে বলেন, ‘এটা তো ভালো, ভাই আমাকে একটি ভোট দেয়ার ব্যবস্থা করেন।’

বিপুল সংখ্যক মাদরাসা শিক্ষার্খীও জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা করার জন্য তাদের সমর্থন জানিয়েছেন।

যেভাবে সমর্থন জানাবেন আপনিও

বাংলাকে জাতিসংঘের সপ্তম দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে গ্রহণ করার দাবির প্রতি সমর্থন জানাতে পারেন আপনিও। এজন্য ভিজিট করুন : www.jagonews24.com/makebanglaofficial

এরপর নাম, ই-মেইল বা ফোন নম্বার দিন, I m not a robot -এ টিক দিয়ে ‘আমি সমর্থন করছি’ বাটনে ক্লিক করুন। একটি ই-মেইল বা ফোন নম্বর থেকে একবার আবেদন করা যাবে।

আরএমএম/এআর/জেডএ/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :