শনাক্তের ৩ দিন পর মরদেহ হস্তান্তর : বিমানমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৮

বিমানমন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল বলেছেন, ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত বাংলাদেশিদের মরদেহ শনাক্তের আগে ময়নাতদন্ত শুরু হবে। তিনদিন পরেই মরদেহ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু হবে।

বুধবার বিকেলে নেপালে ত্রিভুবন বিমানবন্দরে এ বিমানমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শাহজাহান কামাল বলেন, নাম-পরিচয় দিয়ে স্বজনরা আমাদের দূতাবাসের মাধ্যমে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি ফরম পূরণ করে দেবেন। আমরা রাষ্ট্রদূতকে দায়িত্ব দিয়েছি। যে মরদেহ আগে শনাক্ত হয়ে যাবে কিংবা যার চেহারা বোঝা যাবে, আমাদের রাষ্ট্রদূত সেই বিষয়ে পদক্ষেপ নেবেন। মরদেহ হস্তান্তরের প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত থাকবে আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ডিএনএ টেস্ট প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও চিকিৎসকদের নেপালে পাঠাবেন।

বিমানমন্ত্রী বলেন, নেপালের প্রধানমন্ত্রী আমাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এ তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলে দেবেন। নেপালিরা কিন্তু নিজেদের বিমানবন্দরকে ঝুঁকিপূর্ণ বলেননি। নেপালের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তদন্ত প্রতিবেদনের পর সবকিছু জানাবেন।

শাহজাহান বলেন, ব্যক্তিগতভাবে সবাই বাইরে চিকিৎসা নিতে চাইলে করাতে পারবেন। তবে বিমান ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে করাতে চাইলে তা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার।

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে চার ক্রু ও ৬৭ আরোহী নিয়ে বাংলাদেশি ইউএস-বাংলার বিএস-২২১ ফ্লাইটটি বিধ্বস্ত হয়। এতে অর্ধশত যাত্রীর প্রাণহানি ঘটে। ঘটনাস্থলে মারা যান ৩২ জন। এছাড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২১ যাত্রী। উড়োজাহাজের যাত্রীদের মধ্যে ৩২ জন বাংলাদেশি, ৩৩ জন নেপালি, একজন মালদ্বীপ ও একজন চীনের নাগরিক ছিলেন। এছাড়া দুই শিশু ছিল।

আরএম/জেএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :