লাইফ সাপোর্টে রাজীব

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৪২ এএম, ১০ এপ্রিল ২০১৮

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে দুই বাসের চাপায় হাত হারানো তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। গত ৩ এপ্রিল থেকে এই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাজীবকে আজ ওয়ার্ডে নেয়ার কথা ছিল।

রাজীবের খালা হ্যাপি আক্তার জাগো নিউজকে বলেন, ভোর পৌনে ৪টার দিকে রাজীব অজ্ঞান হয়ে যায়। এরপর সকাল ৮টায় তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তার চিকিৎসায় গঠিত সাত সদস্যের মেডিকেল বোর্ডের প্রধান সমন্বয়কারী ডা. মো. সামসুজ্জামান জাগো নিউজকে বলেন, গতকালও ওর খাওয়া-দাওয়া ভালো ছিল। তাকে আজ ওয়ার্ডে দেয়ার সিদ্ধান্ত ছিল। হঠাৎ রাতে তার মস্তিষ্কে সমস্যা হয় ও শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। এ কারণে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে।

রোববারই রাজীবের আরেক খালা জাহানারা বেগম বলেছিলেন, দুর্ঘটনার পর থেকে এ ক’দিন চোখই খুলছিল না রাজীব। তবে এখন চোখ খুলছে।

গত ৩ এপ্রিল দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজারের সার্ক ফোয়ারার কাছে বিআরটিসির একটি দ্বিতল বাসের পেছনের ফটকে দাঁড়িয়ে গন্তব্যের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেন। বাসটি হোটেল সোনারগাঁওয়ের বিপরীতে পান্থকুঞ্জ পার্কের সামনে পৌঁছালে হঠাৎ পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসির বাসটিকে গা ঘেঁষে অতিক্রম করে। এ সময় দুই বাসের প্রবল চাপে গাড়ির পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা রাজীবের ডান হাত কনুইয়ের ওপর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এ ঘটনায় সঙ্গে সঙ্গে আর্তনাদ করে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে সে। এতে তার মাথায়ও প্রচণ্ড আঘাত লাগে।

দুর্ঘটনার পর তাকে প্রথমে শমরিতা হাসপাতালে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।

এসএইচ/এনএফ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :