ঢাকা এখন ফাঁকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৪৯ পিএম, ১৪ জুন ২০১৮ | আপডেট: ১০:০৮ পিএম, ১৪ জুন ২০১৮
বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর শ্যামলী এলাকা থেকে ছবিটি তোলা

কর্মব্যস্ত শহরে ব্যস্ততার শেষ নেই। কর্মযজ্ঞে ব্যস্ত মানুষের মনে পড়েছে নাড়ির টান। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ। অাজ ছিল শেষ কর্মদিবস। তবুও ছুটির আমেজে কেটেছে সরকারি অফিস। বিকেল হতেই চিরচেনা রূপ হারিয়ে ফাঁকা হয়ে গেছে ঢাকা।

যদি শুক্রবার শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়, তবে শনিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর পালিত হবে। এ ক্ষেত্রে শুক্র, শনি ও রোববার সরকারি ছুটি থাকবে। তবে রমজান মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হলে ঈদ হবে আগামী রোববার। সেক্ষেত্রে একদিন বেড়ে সোমবারও সরকারি ছুটি থাকবে।

যেখানে দীর্ঘ যানজট আর গাড়ির শব্দ চিরচেনা রূপ। পথে পথে দুর্ভোগ, রাস্তা ও ফুটপাথে পথচারীদের ভিড়। সেই অসহ্য যানজটের ঢাকার ব্যস্ততম সড়কগুলো ফাঁকা হয়ে গেছে।

Dhaka-free-1

বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে ফাঁকা হতে থাকে রাজধানী। তবে ভিড় শুধু রেল, লঞ্চ ও বাস টার্মিনালগুলোতে।

সরেজমিনে দেখা যায়, প্রিয়জনের সান্নিধ্য লাভের আনন্দ, আপন ঠিকানায় ফেরার অনুভূতির তুলনায় যাত্রার দুর্ভোগ মেনে নিয়েই সপরিবারে গ্রামে ছুটছেন লাখো মানুষ।

ব্যস্ততম এলাকা কারওয়ান বাজার, ধানমন্ডি, গুলশান, ফার্মগেট এখন ফাঁকা। রাস্তার ওপর এখন রিকশার রাজত্ব। যাত্রীবাহী লোকাল বাসের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে টুংটাং শব্দে চলতে দেখা যায় রিকশা।

প্রতিদিন যে এলাকা লাখো মানুষের পদচারণায় মুখরিত থাকে, কালো ধোঁয়া আর যানজট যে স্থানটিকে প্রায়ই নাকাল করে তোলে সেই বাণিজ্যিক এলাকা মতিঝিলে নীরবতা নেমে এসেছে। রাজধানী ঢাকার এই রূপ যেন অবিশ্বাস্য। শুধু ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহায় রাজধানীতে এমন দৃশ্য চোখে পড়বে।

Dhaka-free-1

তবে এখনো লোকে লোকারণ্য সদরঘাট ও গাবতলী, কল্যাণপুর, শ্যামলী, মহাখালী, যাত্রাবাড়ী ও সায়দাবাদে। কারণ এসব স্থান থেকেই যাত্রা শুরু করছে মানুষ। এর বাইরে সর্বত্র পরিবহন নেই বললেই চলে। সিএনজি, প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল দ্রুতগতিতে ছুটে চলতে দেখা যায়।

সড়ক ফাঁকা থাকলেও রাজধানীর মার্কেটগুলোতে চলছে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। বসুন্ধরা শপিংমল, গাউছিয়া, নিউমার্কেট, গুলিস্তান, কর্ণফুলী, মৌচাক মার্কেটের সামনে মানুষের ব্যাপক জটলা লক্ষ করা গেছে।

রাজধানীর আদাবর মনসুরাবাদ এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা বেসরকারি টেলিভিশনের সিনিয়র রিপোর্টার তাইমুর হাসান শুভ বলেন, এই ঢাকাকে খুব মিস করি। কর্মচাঞ্চল্য ও যানজট কমে এখন ঢাকা ফাঁকা। ঘুরতে ও চলতে বেশ ভালো লাগছে। এমন ফাঁকা ঢাকা যদিও বেশিদিন থাকবে না। ঈদের ছুটি শেষে ফের শুরু হবে মানুষের ছুটে চলা।

জেইউ/জেডএ/পিআর