ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধা বাড়াচ্ছে বিমান

রফিক মজুমদার
রফিক মজুমদার রফিক মজুমদার , জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৫৮ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৮

আগামী বৃহস্পতিবার (১৮ আক্টোবর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিমান পরিচালনা পর্ষদের গুরুত্বপূর্ণ সভা। এই সভার অন্যতম এজেন্ডা বিমানের দেড় হাজার ক্যাজুয়াল কর্মীর সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ।

ইতোমধ্যে এই লক্ষ্যে বিমান কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল (অব.) ইনামুলবারীসহ পরিচালনা পর্ষদের অন্যান্য সদস্যদের এ সংক্রান্ত একটি সার সংক্ষেপ পাঠানো হয়েছে। তাতে ১৫শ’ ক্যাজুয়াল শ্রমিককে কীভাবে অর্গানোগ্রামের আওতায় এনে চাকরি স্থায়ী করা যাবে সে বিষয়ে উল্লেখ রয়েছে।

বিমান সূত্র জানিয়েছে, ১৮ অক্টোবরের পর্ষদ সভায় ক্যাজুয়েল শ্রমিকদের চাকরি স্থায়ী করার বিষয়ে সীমিত পরিসরে সিদ্ধান্ত হতে পারে। তবে, ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের চাকরি স্থায়ী না করে তাদের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো হবে বলে নিশ্চিত করেছেন ওই সূত্র।

সূত্রমতে ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের চুক্তিভিত্তিক চাকরির মেয়াদ বাড়বে। যাদের চাকরির মেয়াদ ৮৯ দিন তাদের মেয়াদ সর্বোচ্চ তিন বছর বাড়ানোর চিন্তা ভাবনা চলছে।

বর্তমানে ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের দৈনিক ভিত্তিতে ৪৯০ টাকা মজুরি দেয়া হয়। এই টাকা দিয়ে তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে চলতে অনেক কষ্ট হয় -এই যুক্তিতে বিভিন্ন সুবিধাদি বাড়াতে হবে বলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এ এম মোসাদ্দিক আহমেদ।

তিনি বলেন, বিমান ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের এ সমস্যার শিগগিরই গ্রহণযোগ্য সমাধান হবে।

এ বিষয়ে বিমানের মুখপাত্র ও জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ বলেন, বর্তমান বাজার বিবেচনায় বিমান ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের চলতে কষ্ট হচ্ছে। বিষয়টি বিবেচনা করেই তাদের সুযোগ সুবিধা বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে কর্তৃপক্ষ।

তিনি বলেন, বিমানে ক্যাজুয়াল শ্রমিকদের অবদান অনেক। বিমানের সফলতার পেছনে তাদের ঘাম ঝরানো শ্রম রয়েছে।

উল্লেখ্য, চাকরি স্থায়ী করার দাবিতে গত ৩০ সেপ্টেম্বর কর্মবিরতি পালন ও বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকা ঘেরাও করেন বিমানের ক্যাজুয়াল শ্রমিকরা। সেদিন ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এ এম মোসাদ্দিক আহমেদের আশ্বাসে পরে তারা কাজে ফিরে যান।

আরএম/এমএমজেড/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :