অসহায়-দরিদ্রকে বিনামূল্যে আইনি সেবা দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৩৬ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ উন্নত দেশগুলোতে বিনামূল্যে আইনি সেবা জনপ্রিয় হলেও আমাদের দেশে ততটা হয়নি। আমাদের এখানে এ বিষয়ে আলোচনা অভিজাত হোটেলগুলোতে সীমাবদ্ধ। অথচ আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ দরিদ্র। তাই আমরা কীভাবে তাদের বিনামূল্যে সেবা দিতে পারি, তা নিয়ে আরও গঠনমূলক আলোচনা হওয়া দরকার। শুধু টাকার পেছনে আইনজীবীদের না ছোটে অসহায়-দরিদ্র মানুষকে বিনামূল্যে আইনি সেবা দেয়া উচিত।

বৃহস্পতিবার ফার্স্ট ন্যাশনাল প্রো-বোনো কনফারেন্স ইন বাংলাদেশ শিরোনামে প্রো-বোনো ল’ইয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের আয়োজনে এক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। প্রো-বোনো একটি ল্যাটিন শব্দ। দরিদ্র ও অসহায় বিচারপ্রার্থীদের বিনা খরচে আইনি সেবা দেয়া বোঝাতে এ শব্দ ব্যাবহৃত হয়।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, বিচারবিভাগ জনগণের শেষ আশ্রয়স্থল। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠায় বিচারবিভাগের দায়িত্ব রয়েছে।

প্রধান বিচারপতি বলেন, প্রো-বোনো পরিভাষাটি বাংলাদেশে নতুন এবং এর মাধ্যমে ন্যায়বিচারে সবার সমান অধিকারকে নিশ্চিত করা বোঝায়, যা মানবাধিকারের অংশ। সংশ্লিষ্ট সবার সমন্বিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে মানবাধিকার নিশ্চিত করা সম্ভব।

সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, বর্তমানে দরিদ্র ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠী, অসহায় নারীদের আইনি সেবা দিতে বিভিন্ন এনজিও ও সরকারি লিগ্যাল এইড সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান কাজ করছে, যা সত্যিই প্রশংসনীয়।

দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির পরিসংখ্যান তুলে ধরে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেন, কোনো ধরনের বৈষম্য ব্যতীত সব মানুষের সমানাধিকার নিশ্চিত করেছে আমাদের সংবিধান। সরকার এ লক্ষ্যে কাজ করছে। তিনি জাতিসংঘ ঘোষিত এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সবার জন্য ন্যায়বিচার প্রাপ্তির ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

আইনজীবীদের শুধু টাকার পেছনে না ছোটার আহ্বান জানিয়ে বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বলেন, অসহায়-দরিদ্র মানুষকে বিনামূল্যে আইনি সেবা দিন। সংবিধান অনুযায়ী আইনের শাসন ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় ভূমিকা রাখুন।

জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদার বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ উন্নত দেশগুলোতে বিনামূল্যে আইনি সেবা জনপ্রিয় হলেও আমাদের দেশে এখনও ততটা জনপ্রিয় হয়নি। আমাদের এখানে এ বিষয়ে আলোচনা অভিজাত হোটেলগুলোতে সীমাবদ্ধ। অথচ আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ দরিদ্র। তাই আমরা কীভাবে তাদের সম্পৃক্ত করে বিনামূল্যের সেবা দিতে পারি, তা নিয়ে আরও গঠনমূলক আলোচনা হওয়া উচিত।

সেমিনারে হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগের বিচারপতিরা ছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্যের প্রো-বোনো রিসোর্স পার্সন ব্যারিস্টার মোহাম্মদ মুজিবুল হক।

সংগঠনের চেয়ারম্যান ড. বশির আহমেদের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অ্যাডভোকেট ফরহাদ হোসেন ভূঁইয়া।

এফএইচ/জেডএ/বিএ