৪৭ কেজির কুমড়া আর ৬ ফুটের কচুতে মজেছে দর্শনার্থী

ফজলুল হক শাওন
ফজলুল হক শাওন ফজলুল হক শাওন , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:২০ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০১৯

৩৫, ৩৭, ৪০ ও ৪৭ কেজি ওজনের মিষ্টি কুমড়া, ৬ ফুট দীর্ঘ সাহেবী কচু, চাল কুমড়ার মতো বড় আকৃতির খিরা সবজিতে আবৃত বিমান ও নৌকা। এছাড়া ভাসমান পানিতে সবজি চাষ দর্শনার্থীদের নজর কেড়েছে। এ কারণে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের প্যাভিলিয়নে দর্শনার্থীদের ভিড় বেশি। মেলায় আসা দর্শনার্থীরা প্রবেশ করেই বিভিন্ন স্টল বা প্যাভিলিয়ন ঘোরার আগেই সহজেই নজরে পড়বে এ প্যাভিলিয়নগুলো।

রাজধানীর ফার্মগেট কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) চত্বরে চলছে জাতীয় সবজি মেলা-২০১৯। বাংলাদেশে উৎপাদিত সকল প্রকার সবজির সমাহার ঘটেছে এই মেলায়। ‘নিরাপদ সবজি করব চাষ পুষ্টি মিলবে ১২ মাস’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে সবজি মেলা-২০১৯। আগামীকাল (শনিবার) সন্ধ্যায় এ মেলার সমাপ্তি ঘটবে।

Fair-2

মেলায় ঘুরতে এসেছেন ঢাকা ভূমি জরিপ অফিসের কর্মকর্তা মোস্তফা কামাল। ছুটির দিনে তিনি তার দুই সন্তানকে মেলায় নিয়ে এসেছেন। এক প্রশ্নের জবাবে জাগো নিউজকে তিনি বলেন, দুই সন্তানকে সবজির সঙ্গে পরিচয় করে দেয়ার জন্য মেলায় এনেছি। আমরা সাধারণত বাসায় ১৫ থেকে ২০ প্রকার সবজি ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু মেলায় এসে দেখলাম কয়েকশ প্রকার সবজি। এ ধরনের মেলা ছাড়া এগুলো দেখার অবকাশ নেই।

শুক্রবার সকালে সরেজমিন মেলায় গিয়ে দেখা গেছে, সকাল থেকেই মানুষ খুব আগ্রহ নিয়ে সবজি মেলায় প্রবেশ করছেন। তারা মেলা ঘুরে দেখছেন এবং বিভিন্ন সবজির সঙ্গে পরিচিত হচ্ছেন। মেলায় অংশ নেয়া লাল তীর সীডস এবং এসিআই’র প্যাভিলিয়নে ঢাকা শহরের অনেকেই ভিড় জমাচ্ছেন সবজির বীজের জন্য। হজরত আলী নামে ধানমন্ডির একজন কয়েক প্রকার সবজির বীজ নিচ্ছেন। ছাদে তিনি সবজি ফলান। প্রতিবছরই মেলা থেকে তিনি বীজ কেনেন বলে জানান জাগো নিউজকে।

Fair-4

বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের কর্মকর্তা আবদুর রাজ্জাক এক প্রশ্নের জবাবে জাগো নিউজকে বলেন, এটা আমাদের সরকারি প্রতিষ্ঠান। সারাদেশের কৃষির উন্নয়নের জন্য আমরা কাজ করি। আমাদের মূল কাজ হচ্ছে কৃষকদের মধ্যে সার, সেচ ও বীজ বিতরণ করা। বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন সারাদেশে ডিলারদের মাধ্যমে কৃষকের দৌড় গোড়ায় পৌঁছে দেয়।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিদেশে বাংলাদেশের সবজির চাহিদা অনেক বেশি। কৃষকরা সংঘবদ্ধ হয়ে দেশে ও বিদেশে মার্কেটিং করার সুযোগ পেলে তারা লাভবান হবেন।

Fair-5

৪৭ কেজি ওজনের মিষ্টি কুমড়া কোথায় উৎপাদন হয়েছে এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আড়িয়াল খাঁ বিলের পাশে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের ফার্মে এগুলো উৎপাদন হয়েছে।

আর ৬ ফুট দীর্ঘ সাহেবী কচু এসেছে ভোলা থেকে। এই সাহেবী কুচটি ভোলার তজুমদ্দিন থেকে নিয়ে এসেছেন সাইফুল ইসলাম।

মেলায় বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ৭১টি স্টল ও ৫টি প্যাভেলিয়ন অংশ নিয়েছে। সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য মেলা উন্মুক্ত থাকছে। চতুর্থবারের মতো এ মেলার আয়োজক কৃষি মন্ত্রণালয়।

এফএইচএস/জেএইচ/পিআর