রমনা বটমূল ঢাবি ক্যাম্পাসে জনস্রোত

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩০ এএম, ১৪ এপ্রিল ২০১৯

রাজধানীর ঐতিহাসিক রমনা বটমূলে ছায়ানটের বর্ষবরণের মধ্য দিয়ে বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ শুরু হয়েছে। বর্ষকে বরণ করে নিতে রমনা, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে হাজারো নারী-পুরুষ ও শিশুর ঢল নেমেছে।

Romna

শনিবার রাতে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টিপাতের কারণে নববর্ষের প্রথম দিনটি শুরু হয় কি-না তা নিয়ে অনেকেই সন্দিহান ছিলেন। কিন্তু আজ রোববারের সকালের আবহাওয়া গতকালের সম্পূর্ণ বিপরীত ছিল।

Romna

কাকডাকা ভোর হতেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজারো মানুষ নববর্ষের পোশাক পরিধান করে রমনা উদ্যান অভিমুখে ছুটে আসেন। সময় যত গড়াতে থাকে মানুষের ভিড় তত বাড়তে থাকে।

Romna

নগরবাসীকে নববর্ষের অনুষ্ঠান নির্বিঘ্নে পালনের সুযোগ করে দিতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নজরদারি ছিল চোখে পড়ার মতো।

রাজধানীর নীলক্ষেত, পলাশী, বকশিবাজার, কাটাবন মোড়সহ বিভিন্ন প্রবেশপথে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী কাউকে যানবাহন নিয়ে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

Romna

ভোর ৬টায় রমনা বটমূলে রাজধানীর কলাবাগানের বাসিন্দা শফিকুল ইসলাম দম্পতির সঙ্গে আলাপকালে তারা জানান, সাধারণত বছরের অন্য দিনগুলোতে বেলা করে ঘুম থেকে উঠলেও নববর্ষের দিনটিতে তারা ফজর নামাজের পরপরই রমনা বটমূলে দিকে ছুটে আসেন। নতুন বর্ষ বর্ষবরণ অনুষ্ঠান দেখে মিঠাই মন্ডা কিনে বাসায় ফিরবেন।

Romna

আনুমানিক সত্তর বছরের বৃদ্ধ অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা নিয়ামুল হাসান জানান, প্রতি বছর নাতি-নাতনি সঙ্গে নিয়ে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান দেখতে আসেন।

এমইউ/জেএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]