কেরানীগঞ্জে নকল প্রসাধনী : ৮ জনের কারাদণ্ড, জরিমানা ৩৬ লাখ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৭ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৯

বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল প্রসাধনীপণ্য তৈরি করায় কেরানীগঞ্জের বরিশুরে নামসর্বস্ব একাধিক কারখানায় অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। এসব নকল প্রসাধনী, তেল, ক্রিম তৈরি ও বাজারজাত করার অপরাধে আটজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড এবং ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাব পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার দুপুর থেকে এ অভিযান শুরু হয়। অভিযান চলে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। অভিযানকালে প্রায় দুই কোটি টাকা মূল্যের নকল প্রসাধনীসামগ্রী জব্দ, পাঁচটি কারখানা বন্ধ করে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অভিযানকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

fine-1

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, অভিযানকালে যা দেখলাম তা সত্যি ভয়াবহ। বিদেশি বিভিন্ন কসমেটিক্স আইটেম যেমন- জনসন বেবি লোশন, জনসন পাউডার, জনসন ক্রিম, প্যারাসুট নারিকেল তেল, কুমারিকা, ভাটিকা, ভেটনোভেট ক্রিম, মুভ, আমেরিকান স্টিলম্যান ক্রিম, বার্নল ক্রিমসহ ১৪ রকমের দেশি বিদেশি ব্র্যান্ডের পণ্য নকল করা হয়েছে।

শুধু তাই, তারা সেখানে হুবহু নকল লোগো ব্যবহার করে তৈরিকৃত নকল কসমেটিক্স পণ্যগুলো বাজারজাত করে আসছিল। যা ভোক্তা অধিকার আইনে দণ্ডনীয় ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

নকল প্রসাধনী তৈরি ও বাজারজাত করার অপরাধে মো. আলাউদ্দিন, মো. সজল, মো. তাজুল ইসলাম, মো. শাওন, মো. শুভ, মো. আরিফ হোসেন, মো. সাব্বির ও জামাল উদ্দিনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড এবং ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি জব্দ করা হয়েছে প্রায় দুই কোটি টাকা মূল্যের নকল প্রসাধনী সামগ্রী। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে পাঁচটি কারখানা।

জেইউ/বিএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :