দ্বিতীয় মেয়াদে রাষ্ট্রপতির এক বছর

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৪৬ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
ফাইল ছবি

গ্রামের নাম কামালপুর। কিশোরগঞ্জে হাওর এলাকার এক নিভৃত পল্লী। দুর্গম আর হতদরিদ্র মানুষের এ গ্রামে জন্ম নেয়া দুরন্ত এক শিশুর বেড়ে ওঠা। আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্ন দেখে শিশুটি। সেই শিশুটি এখন দেশের টানা দ্বিতীয়বারের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

গত বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি ধারাবাহিকভাবে দ্বিতীয় মেয়াদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন তিনি। এরপর ২৪ এপ্রিল দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেন তিনি।

আরও পড়ুন>> রাষ্ট্রপতির চিঠি পেয়ে অঝোরে কাঁদলেন কৃষক

১৯৪৪ সালের ১ জানুয়ারি কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার কামালপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন আবদুল হামিদ। তিনি নিকলী জি. সি. পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মেট্রিকুলেশন পাস করেন। পরে কিশোরগঞ্জ সরকারি গুরুদয়াল কলেজ থেকে এইচএসসি ও বিএ পাস করেন। সরকারি গুরুদয়াল কলেজের ভিপি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

কিশোরগঞ্জ জজ কোর্টে ওকালতি করেছেন অ্যাডভোকেট আবদুল হামিদ। কিশোরগঞ্জ বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ছিলেন বেশ কয়েকবার।

তার স্ত্রী মোছা. রশীদা হামিদ। যার প্রেরণায় তিনি আজকের এ অবস্থানে। তাদের তিন ছেলে ও এক কন্যা সন্তান রয়েছে।

ছাত্রজীবন থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত আবদুল হামিদ। কিশোরগঞ্জ-৪ আসন থেকে ১০টি সংসদ নির্বাচনে সাতবার এমপি নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে জাতীয় সংসদে তিনি ডেপুটি স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০১ সালের জাতীয় সংসদে তিনি বিরোধীদলীয় উপনেতা ছিলেন।

২০০৯ সালের ২৫ জানুয়ারি সংসদের স্পিকার নিযুক্ত হন। এরপর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ২০১৩ সালে বাংলাদেশের ২০তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন। সে বছরের ২৪ এপ্রিল তিনি প্রথম মেয়াদে রাষ্ট্রপতি কার্যালয়ের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

জেডএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :