৩ জুন কি ছুটি থাকছে?

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০৮ পিএম, ২৭ মে ২০১৯

আগামী ৩ জুন ছুটি ঘোষণা করলে ঈদে টানা ৯ দিনের ছুটি পাবেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তবে ৩ জুন ছুটি ঘোষণা নিয়ে কি ভাবছে সরকার!

৩ জুন ছুটি দেয়া হবে কি না- এখনও সরকার সেই সিদ্ধান্ত নেয়নি বলে বিভিন্ন সূত্র নিশ্চিত করেছে। যদিও এর আগে ঈদের সময় টানা ছুটির সুযোগ করে দিতে মাঝখানের কর্মদিবসকে নির্বাহী আদেশে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফ করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

আগামী সপ্তাহে শুধু একদিন অফিস সেদিন ছুটি থাকবে কিনা- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘এটা নিয়ে (মন্ত্রিসভা বৈঠকে) আলোচনা হয়নি। আমার মনে হয় এটা সামারির মাধ্যমে নিষ্পত্তি হবে, যদি হয় আর কি!’

হওয়ার কোনো সম্ভাবনা আছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে শফিউল আলম বলেন, ‘এখনও কোনো আলোচনা শুনিনি। মাঝখানে একটি দিন পড়ে যায় সেটা ৩ তারিখ।’

প্রধানমন্ত্রী মঙ্গলবার বিদেশে চলে যাবেন, তিনি চলে গেলে একদিনের ছুটি সিদ্ধান্ত কীভাবে হবে- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘এখন প্রধানমন্ত্রী বিদেশে থাকলেও কাজ করেন। এটা ইন্টারনেটের যুগ, ফাইল মেইলে চলে যায়, মেইলে চলে আসে। কোনো সমস্যা হয় না। আমরা এটাকে ই-নথি বলি।’

ছুটির ঘোষণার ফাইল প্রক্রিয়াকরণের মূল কাজটি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিধি অনুবিভাগের একাধিক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে জানিয়েছেন, ৩ জুন ছুটি-সংক্রান্ত ফাইল প্রক্রিয়াকরণের জন্য কোনো নির্দেশনা উপর থেকে এখনও আসেনি।

এবার ঈদের ছুটির আগে পরে সাপ্তাহিক ছুটি, লাইলাতুল কদরের ছুটির মধ্যে শুধু ৩ জুনই একটি কর্মদিবস। এদিন ছুটি হলে টানা ৯ দিনের ছুটি হবে ঈদে।

ঈদুল ফিতর মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব। প্রতি বছর ঈদের সময় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা গ্রামের বাড়িতে প্রিয়জনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে রেল, সড়ক ও নৌপথে রাজধানী ছাড়ে অসংখ্য মানুষ।

এবার রমজান মাস ২৯ দিনে হলে ঈদ হবে ৫ জুন বুধবার আর রমজান ৩০ দিনে শেষ হলে ঈদ হবে ৬ জুন বৃহস্পতিবার। ঈদ যেদিনই হোক এবার ঈদের ছুটি শুরু হবে ৪ জুন মঙ্গলবার।

৫ জুন ঈদ হলে ছুটি থাকবে ৪, ৫ ও ৬ জুন অর্থাৎ মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতি। এরপর শুক্র ও শনিবার (৭ ও ৮ জুন) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি। ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার আগে ২ জুন রোববার লাইলাতুল কদরের ছুটি। কদরের ছুটির আগে ৩১ মে ও ১ জুন (শুক্র ও শনিবার) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি। ৩১ মে থেকে ৯ জুন পর্যন্ত ৯ দিনের মধ্যে শুধু ৩ জুন সোমবার অফিস খোলা।

ঈদুল ফিতর ৬ তারিখ হলে ঈদের ছুটি একদিন বেড়ে ৭ জুন পর্যন্ত হবে। এক্ষেত্রে ঈদের ছুটি হবে ৪, ৫, ৬ ও ৭ জুন। অর্থাৎ ৭ জুনের ঈদের ছুটি পড়বে শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির মধ্যে। এক্ষেত্রেও ৩ জুন অফিস না করলে ৯ দিন ছুটি কাটানো যাবে।

এর আগে ২০১৬ সালে ঈদুল ফিতরের সময় শবে কদর, সাপ্তাহিক ছুটির সঙ্গে ঈদুল ফিতরের ছুটি মিলিয়ে টানা ৯ দিনের ছুটির মধ্যে একদিন অফিস খোলা ছিল। ওই সময় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মাঝখানের একদিন ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল।

তখন ১ থেকে ৯ জুলাইয়ের মধ্যে ৪ জুলাই ছিল কর্মদিবস। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের টানা ছুটির সুযোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওইদিন ছুটি ঘোষণা করেন। তবে ওই বছরের ৪ জুলাইয়ের অফিস ১৬ জুলাই শনিবার করতে হয় সরকারি চাকুরেদের।

আরএমএম/এনডিএস/পিআর