সকাল থেকে পাওয়া যাবে ট্রেনের ফিরতি টিকিট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:২৪ পিএম, ২৮ মে ২০১৯

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট গত ২২ মে থেকে বিক্রি শুরু হয়ে ২৬ মে শেষ হয়। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার (২৯ মে) সকাল থেকে শুরু হচ্ছে ঈদের ফিরতি টিকিট বিক্রির কার্যক্রম। সকাল ৯টা থেকে ট্রেনের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে। যতক্ষণ টিকিট থাকে বিক্রি হতে থাকবে।

ঈদ শেষে ফিরতি টিকিটের ক্ষেত্রে যারা ২৯ মে টিকিট সংগ্রহ করবেন তারা ৭ জুন, যারা ৩০ মে টিকিট সংগ্রহ করবেন তারা ৮ জুন, যারা ৩১ মে টিকিট সংগ্রহ করবেন তারা ৯ জুন, যারা ১ জুন টিকিট সংগ্রহ করবেন তারা ১০ জুন, যারা ২ জুন টিকিট সংগ্রহ করবেন তারা ১১ জুনের টিকিট পাবেন।

রেলভবন সূত্রে জানা গেছে, একজন যাত্রী চারটির বেশি টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন না। জাতীয় পরিচয়পত্র দেখিয়ে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে। যাত্রীরা ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইনে অ্যাপের মাধ্যমে কিনতে পারবেন। স্টেশন কাউন্টার থেকে ৫০ শতাংশ টিকিট অগ্রিম কিনতে পারবেন। অনলাইনে ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি না হলে অবিক্রিত টিকিট কাউন্টার থেকে দেয়া হবে।

জানা গেছে, ঈদের ১০ দিন আগে এবং পরের ১০ দিন ট্রেনে ভিআইপিদের জন্য সেলুন সংযোজন করা হবে না। আগামী ৩ ও ৪ জুন ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল করবে না। রেলে প্রতিদিন গড়ে আড়াই লাখ মানুষ চলাচল করলেও ঈদের সময় তা প্রায় তিন লাখ হয়ে যায়।

ঈদুল ফিতরের পাঁচদিন আগে ৩১ মে থেকে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত সব আন্তঃনগর ট্রেন সাপ্তাহিক বন্ধের দিনও চলাচল করবে। ছুটি প্রত্যাহারের কারণে পূর্ব ও পশ্চিম মিলে প্রায় ৪৮টি ট্রেন বিশেষ ট্রিপ হিসেবে পরিচালিত হবে। যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের সুবিধার্থে ঈদের তিনদিন আগে থেকে কন্টেইনার ও জ্বালানি তেলবাহী ট্রেন ছাড়া কোনো পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল করবে না।

ঈদে আট জোড়া বিশেষ ট্রেন

ঈদুল ফিতরের সময় দেশের বিভিন্ন গন্তব্যে আট জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে। তবে বিশেষ ট্রেনের টিকিট অ্যাপের মাধ্যমে কাটা যাবে না।

দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল (এক জোড়া) ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ-ঢাকা রুটে চলবে। চাঁদপুর ঈদ স্পেশাল (২ জোড়া ট্রেন) চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম রুটে চলবে। মৈত্রীর রেক দিয়ে খুলনা ঈদ স্পেশাল ট্রেন ঢাকা-খুলনা-ঢাকা, ঈশ্বরদী স্পেশাল ঢাকা-ঈশ্বরদী-ঢাকা, লালমনি ঈদ স্পেশাল ট্রেন লালমনিরহাট-ঢাকা-লালমনিরহাট রুটে চলাচল করবে।

দেওয়ানগঞ্জ স্পেশাল ও চাঁদপুর ঈদ স্পেশাল ট্রেন ঈদের আগে ২, ৩ ও ৪ জুন এবং ঈদের পর ৬-১২ জুন চলাচল করবে। খুলনা ঈদ স্পেশাল ৩ জুন দিবাগত রাতে একটি ট্রিপ চলবে।

ঈশ্বরদী স্পেশাল ও লালমনি ঈদ স্পেশাল ট্রেন ঈদের আগে ২, ৩ ও ৪ জুন চলবে। এছাড়া ঈদের দিন শোলাকিয়া স্পেশাল-১ (ভৈরববাজার-কিশোরগঞ্জ-ভৈরববাজার) এবং শোলাকিয়া স্পেশাল-২ (ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ) চলাচল করবে।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ৫ বা ৬ জুন দেশে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর পালিত হবে। তবে ৫ জুন ঈদ ধরে রেলওয়ের কর্মপরিকল্পনা সাজানো হয়েছে।

এএস/বিএ