তামাকজাত পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩১ এএম, ৩১ মে ২০১৯

আইন ভঙ্গ করে প্রচার করা তামাকজাত পণ্যের বিজ্ঞাপন বন্ধের দাবি জানিয়েছে তামাকবিরোধী বিভিন্ন সংগঠন।

সিগারেটের বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে টোব্যাকো কোম্পানি আইন ভঙ্গের পাশাপাশি তরুণদের তামাক ব্যবহারে আকৃষ্ট করতে অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তারা।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তামাক নিয়ন্ত্রণে কার্যরত ২১টি সংগঠন আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে এ দাবি জানানো হয়। প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে, একই দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেলের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হয়।

বক্তারা বলেন, টোব্যাকো কোম্পানিগুলো বিক্রয় কর্মীদের পোশাক এবং ভ্যানগাড়িতে কোম্পানির ব্র্যান্ড কালার ও লোগো ব্যবহার করছে। পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট ভিডিও বিভিন্ন ওয়েবসাইট, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হচ্ছে। যা ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০০৫ এর সুস্পষ্ট লঙ্ঘন এবং শাস্তিযোগ্য আপরাধ। উক্ত আইনের ধারা-৫ ভঙ্গের প্রেক্ষিতে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড এবং তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড বা উভয় দণ্ডের বিধান রয়েছে।

বক্তারা বলেন, তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমে অনতিবিলম্বে টোব্যাকোসহ সব তামাক কোম্পানির প্রচারণা কার্যক্রম বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে অনতিবিলম্বে টোব্যাকোর প্রচার-প্রচারণা ও বিজ্ঞাপন বন্ধে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

তারা বলেন, প্রত্যেক এলাকায় পোস্টার, লিফলেট, ব্যানার, ডেলিভারি ভ্যানসহ নানাভাবে যে সব বিজ্ঞাপন প্রচার হচ্ছে তা সাত দিনের মধ্যে অপসারণের নির্দেশ প্রদান করতে হবে।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন প্রত্যাশা মাদক বিরোধী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হেলাল আহমেদ, তাবিনাজের সমন্বয়কারী সাঈদা আখতার, দ্য ইউনিয়নে কারিগরি পরামর্শক সৈয়দ মাহবুবুল আলম, গ্রামবাংলা উন্নয়ন কমিটির নির্বাহী পরিচালক এ কে এম মাকসুদ, ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডসের প্রোগ্রাম অফিসার আতিউর রহমান মাসুদ প্রমুখ।

এএস/এএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]