ভিসির অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় নাশকতার মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৪ পিএম, ১২ জুন ২০১৯

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য (ভিসি) অফিসে ভাঙচুরের ঘটনায় নাশকতা মামলা করেছে কর্তৃপক্ষ।

বিএসএমএমইউর প্রক্টর অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোজাফফর আহমেদ গতকাল মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলাটি করেন।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে জানান, মামলায় ৪০ থেকে ৫০ জন আন্দোলনকারীকে আসামি করা হয়েছে। যারা পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়ে পরীক্ষা বাতিল চেয়েছে তারাই ভাঙচুর চালিয়েছে বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে। মামলায় কয়েকজনের নাম থাকলেও বাকিদের অজ্ঞাত হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

ওসি বলেন, ভিডিও ফুটেজ দেখে এবং তদন্ত করে যারা ভাঙচুর করেছেন তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি বলেও জানান তিনি।

গত ২০ মার্চ অনুষ্ঠিত বিএসএমএমইউতে ২০০ চিকিৎসক নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল মে মা প্রকাশিত হয়। ১৮০ জন মেডিকেল অফিসার ও ২০ জন ডেন্টাল চিকিৎসক পদে ২০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় ৮ হাজার ৫৫৭ জন চিকিৎসক অংশগ্রহণ করেন।

bsmmu

লিখিত পরীক্ষায় এক পদের জন্য চারজন পাস করেন। এ হিসাবে ৭১৯ জন মেডিকেল অফিসার ও ডেন্টালের ৮১ জন মিলে মোট ৮২০ জন লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন।

এ ফলাফল ঘোষণার পরপরই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন ‘সুযোগবঞ্চিত’ চিকিৎসকরা। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের বিভিন্ন দেয়ালে ‘ছেলের জন্য সাজানো নিয়োগ, লজ্জা, ভিসি লজ্জা, ভিসির পদত্যাগ চাই!, অর্থের বিনিময়ে এ নিয়োগ মানি না, মানবো না, প্রশ্নফাঁসের এ নিয়োগ কাদের জন্য, আমাদের সংগ্রাম চলছে, চলবে’- স্লোগান লেখা পোস্টার সেঁটে দেন।

তবে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের দাবি, সঠিক নিয়ম মেনে পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়েছে। কোনো অনিয়ম হয়নি।

এআর/এইউএ/এনডিএস/জেআইএম