মিরপুর বিআরটিএ অফিসসহ দেশের চার স্থানে দুদকের হানা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ১৭ জুন ২০১৯

বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ)-এর নানাবিধ অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন-১০৬) অভিযোগ আসে, বিআরটিএ মিরপুর অফিসে কতিপয় দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা-কর্মচারী সেবা প্রদানে বিঘ্ন ঘটিয়ে অসাধু উপায়ে অর্থ আদায় করছেন। এ প্রেক্ষিতে দুদক প্রধান কার্যালয় হতে আজ (সোমবার) একটি অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযান পরিচালনা করে টিম জানতে পারে, ব্লু বুক এবং ডিজিটাল স্মার্ট কার্ডের বেশকিছু আবেদন এক মাসেরও বেশি সময় ধরে পড়ে রয়েছে। এ বিলম্বের বিষয়ে জানতে চাইলে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ জানান, জার্মানি থেকে সরঞ্জামাদি আনার কারণে এ বিলম্ব হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে দুদক গ্রাহক ভোগান্তি রোধে ডকুমেন্ট প্রস্তুত হওয়ার পরে তা এসএমএস এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়ার পরামর্শ দেন। এছাড়াও বেশ সেবা একদিনের মধ্যেই ওয়ান স্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে প্রদানের সুপারিশ দেয় দুদক টিম।

এদিকে দিনাজপুরের ঐতিহ্যবাহী রামসাগর জাতীয় উদ্যান হতে গাছ পাচারের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে। সমন্বিত জেলা কার্যালয়, দিনাজপুর হতে পরিচালিত এ অভিযানে দুদক টিম অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পায়।

রামসাগরের জাতীয় উদ্যানের কিউরেটর এ অনিয়মের সাথে জড়িত মর্মে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়ে স্থানীয় বন বিভাগ এবং পুলিশ বিভাগকে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা করার সুপারিশ করে দুদক টিম। এছাড়াও বনসম্পদ ধ্বংস করে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে কমিশনে অনুসন্ধানেরও সুপারিশ করেছে দুদক টিম।

এদিকে পটুয়াখালীর লেবুখালী ফেরিঘাটে পারাপারে জনসাধারণের নিকট হতে অতিরিক্ত টাকা আদায় করা হচ্ছে এরূপ অভিযোগের প্রেক্ষাপটে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক, সমন্বিত জেলা কার্যালয়, পটুয়াখালীর একটি টিম। সরেজমিন অভিযানকালে টিম অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পায়। টিম জানতে পারে, ৯৫ থেকে ১০০ টাকার ভাড়া ক্ষেত্রবিশেষে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা করে আদায় করা হচ্ছে।

এছাড়া রশিদ প্রদান এবং রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধকরণে ব্যাপক অনিয়মের প্রমাণ পায় দুদক টিম। এর পরিপ্রেক্ষিতে দুদক টিম স্থানীয় রোডস অ্যান্ড হাইওয়ে কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে এবং ওই ফেরিঘাটে অবিলম্বে ভাড়ার তালিকা সম্বলিত বিলবোর্ড স্থাপনের জন্য পরামর্শ প্রদান করে।

এদিকে সাতক্ষীরায় বাঁশদহ ইউনিয়নে খাল খননে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়, খুলনার একটি এনফোর্সমেন্ট টিম আজ এ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানকালে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পায় দুদক টিম। খাল খননের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিএডিসি কর্তৃপক্ষ ৭৫ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে দাবি করলেও দুদক টিম এর প্রাথমিক পর্যালোচনায় অর্ধেক কাজও সম্পন্ন হয়নি মর্মে দৃষ্ট হয়।

এ খনন কাজে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতি হয়েছে মর্মে প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়ায় এ বিষয়ে বিস্তারিত অনুসন্ধানের সুপারিশ করেছে দুদক টিম।

এদিকে বিআরটিসি'র দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা কর্মচারী অনিয়মের বিষয়ে খতিয়ে দেখতে চেয়ারম্যান, বিআরটিসি, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল এ বদলি সংক্রান্ত অনিয়মের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পরিচালক, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে ব্রিজ নির্মিত হচ্ছে এমন অভিযোগ খতিয়ে দেখতে প্রধান প্রকৌশলী, এলজিইডি’কে অনুরোধ করেছে দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিট।

এমইউ/এসএইচএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :