গাড়ি থামিয়ে চা খেলেন সেলফি তুললেন মেয়র আতিকুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৪৫ পিএম, ২০ জুন ২০১৯

নতুন বাজার মোড় পার হয়ে ভাটারা থানার সামনে থেকে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলামের গাড়িবহর চলছে নতুন অন্তর্ভুক্ত ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের সাঁতারকুলের দিকে। লক্ষ্য ৪১ (সাঁতারকুল) এবং ৩৮নং (বাড্ডা) ওয়ার্ড এলাকা পরিদর্শন করে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে জনসচেতনতার পাশাপাশি উন্নয়ন পরিকল্পনায় জনগণের সম্পৃক্ততা বৃদ্ধি করা।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের মাগারদিয়া, সাঁতারকুল এলাকায় পৌঁছায় মেয়রের গাড়িবহর। মেয়রের গাড়ির সঙ্গে হঠাৎ পুরো গাড়িবহরই থেমে যায় স্থানীয় এই মোড়ে। মেয়র গাড়ি থেকে নেমেই পাশের মকবুল ইসলামের চায়ের দোকানে চলে যান। এরপর চিনি ছাড়া চা দিতে বলে দোকানি মকবুলকে।

mayor atik

সেখানে চা খেয়ে একটু সামনের দিকে এলাকাবাসীকে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করার পরামর্শ দেন। পাশাপাশি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে এলাকাবাসীর হাতে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে জনসচেতনতা বিষয়ক লিফলেট বিতরণ করা হয়।

মেয়রের গাড়িবহর গাড়ি আরেকটু সামনের দিকে এগিয়ে যেতেই হঠাৎ গাড়ি থামিয়ে নেমে পড়েন মেয়র। সেখানে একটি স্কুলের সামনে নিজের মোবাইল দিয়ে সেলফি তোলেন মেয়র। এরপর ফের শুরু হয় পরিদর্শনযাত্রা।

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে এলাকাবাসীকে বলা হয়, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া একটি ভাইরাসজনিত জ্বর, যার বাহক এডিস মশা। এডিস মশা বাসাবাড়ির ভেতর এবং বাইরে যত্রতত্র পড়ে থাকা বিভিন্ন পাত্র ও অন্যান্য স্থানে জমে থাকা পরিষ্কার পানিতে ডিম পাড়ে। এডিস মশা নিধনে নগরবাসীকে সচেতনভাবে মশকনিধনকর্মীদের সহযোগিতা করা প্রয়োজন।

 mayor atik

বেজমেন্টের পানির ট্যাংক, নির্মাণকাজে ব্যবহৃত চৌবাচ্চা, ওয়াসার পানির মিটার, অব্যবহৃত বালতি, ড্রাম, ফুলের টব ইত্যাদি স্থানে এক নাগাড়ে তিন দিনের বেশি পানি জমতে দেবেন না। বাড়ির ছাদ, দুই দালানের মাঝে স্যাঁতস্যাঁতে করে রাখবেন না। বাড়ির আশপাশে ঝোঁপঝাড় এবং আঙিনা পরিষ্কার রাখুন।

নতুন সংযুক্ত ওয়ার্ড পরিদর্শন শেষে ৪১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এক সেমিনারে মেয়র ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পরেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং এলাকাবাসী অংশ নেন।

এএস/বিএ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :