স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা প্রদানে এবার ব্যাপক সাড়া হজযাত্রীদের

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল
মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:০০ পিএম, ২৭ জুন ২০১৯
ফাইল ছবি

চলতি বছর হজে গমনেচ্ছু যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা প্রদানে আশাব্যঞ্জক সাড়া পাওয়া গেছে। গত ১৬ জুন থেকে রাজধানীসহ সারাদেশের বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষার পাশাপাশি ইনফ্লুয়েঞ্জা ও মেনিনজাইটিস টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বিকেল সোয়া ৪টা পর্যন্ত ৭৭ হাজার ৭০০ জন হজযাত্রী প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা দেওয়ার পর স্বাস্থ্য ও টিকা সনদ সংগ্রহ করেছেন। ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

চলতি বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭ হাজার ১৯৮ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার জনসহ মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন বাংলাদেশি হজ পালনের কথা রয়েছে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জাগো নিউজকে জানান, দ্রুত সময়ে এতো বিপুলসংখ্যক হজযাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন ও টিকাদান শেষ হওয়ার ঘটনা অতীতে ঘটেনি। শুরুর দিকে দু-একদিন স্বাস্থ্য সনদ সংগ্রহে বিলম্ব হয়। কিন্তু হজযাত্রীদের সুবিধার জন্য অনলাইনে স্বাস্থ্য সনদ সংগ্রহের ব্যবস্থা করা হয়। এরপরই স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকাদান কেন্দ্রে হজযাত্রীদের ভিড় বাড়তে থাকে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিগত বছরগুলোতে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়াই স্বাস্থ্য সনদ দেওয়ার অভিযোগ ছিল। টিকা প্রদান না করে অনেক সময় টিকার সনদ দেওয়া হতো। তবে চলতি বছর প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্ট না দেখে কিংবা যাচাই-বাছাই না করে কোনো স্বাস্থ্য সনদ বা টিকা সনদ দেওয়া হচ্ছে না।

ধর্ম মন্ত্রণালয় কর্মকর্তারা বলছেন, গত বছর পর্যন্ত হজযাত্রীদের বেশিরভাগ স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা সনদ শেষ মুহূর্তে আশকোনা হজক্যাম্পে তড়িঘড়ি করে দেওয়া হতো। এ বছর ৩০ জুন আশকোনা হজক্যাম্পের হেলথ ক্যাম্প শুরু হবে। ৪ জুলাই থেকে হজ ফ্লাইট শুরু। হজ ফ্লাইট শুরুর আগেই বিপুলসংখ্যক হজযাত্রীর স্বাস্থ্য সনদ ও টিকা সনদ গ্রহণের অতীত রেকর্ড নেই।

কারণ অনুসন্ধানে জানা গেছে, চলতি বছর অনলাইনে হজ ভিসা প্রদান করছে রাজকীয় সৌদি সরকারের হজ ও ওমরা মন্ত্রণালয়। ই-ভিসা প্রদানের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষার বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত ও টিকা গ্রহণের তথ্য দেওয়া বাধ্যতামূলক। এ কারণে শুরু থেকেই সরকারি ও বেসরকারি হজযাত্রীদের দ্রুত স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা গ্রহণের জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়। এ কারণে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা বেশি।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আব্দুল্লাহ আরিফ মোহাম্মদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১৬ জুন থেকে দেশব্যাপী হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকা প্রদান কার্যক্রম নির্ধারিত কেন্দ্রসমূহে শুরু হয়েছে। অনলাইনে ই-হেলথ/টিকা গ্রহণ সনদ ব্যতীত এ বছর হজযাত্রীদের ভিসা গ্রহণের জটিলতা তৈরি হতে পারে উল্লেখপূর্বক নিকটবর্তী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে স্বাস্থ্য পরীক্ষার সনদ গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হয়।

এমইউ/আরএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :