দেশের বিভিন্ন স্থানে দুদকের অভিযান

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩০ পিএম, ০৪ জুলাই ২০১৯

রংপুর মেডিকেল কলেজে সেবা প্রদানে অনিয়ম এবং হাসপাতালের যন্ত্রপাতি ও অন্যান্য মালামাল ক্রয়ে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদক, সমন্বিত জেলা কার্যালয়, রংপুর আজ (বৃহস্পতিবার) এ অভিযান চালায়।

সরেজমিন অভিযানে হাসপাতালে সেবা প্রদানে ব্যাপক ভোগান্তির চিত্র ফুটে ওঠে। এছাড়া হাসপাতালের উপকরণ ক্রয়ে দুর্নীতির অভিযোগও খতিয়ে দেখে দুদক টিম। সম্প্রতি ক্রয়কৃত বেশ কিছু যন্ত্রপাতি এবং মালামালের ক্ষেত্রে বাজার দরের সাথে টেন্ডারের মূল্যের বিপুল পরিমাণ অসঙ্গতি রয়েছে মর্মে টিম প্রাথমিক তথ্যাদি পায়। এ প্রেক্ষিতে টেন্ডার প্রক্রিয়ায় যাবতীয় তথ্য সংগ্রহ করে দুদক টিম।

তথ্যসমূহ যাচাইপূর্বক ক্রয়ে অনিয়ম এবং রোগীদের হয়রানি তথা সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে অনুসন্ধানের অনুমোদন চেয়ে কমিশনে প্রতিবেদন উপস্থাপন করেছে অভিযানকারী টিম।

এদিকে পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলায় ভূমি অধিগ্রহণে মূল্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক।

দুদকের নিকট অভিযোগ আসে, লেবুখালীতে পায়রা সেতুর নদীর তীর রক্ষা প্রকল্পের আওতায় ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষেত্রে একটি রেইনট্রি গাছের মূল্য বাজারদরের চেয়ে প্রায় ১০ গুণ বেশি ধরা হয়েছে। সরেজমিন অভিযানে দুদক টিম জানতে পারে, ওই গাছটির মূল্য ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রায় ৭ লাখ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে, যেখানে এরূপ গাছের মূল্য ৩৫ হাজার টাকা মর্মে জানা যায়। অধিগ্রহণ সংক্রান্ত সংশ্লিষ্ট তথ্যাবলি বিশ্লেষণ করে দুদক টিম এ বিষয়ে বিস্তারিত অনুসন্ধানের অনুমোদন চেয়ে কমিশনে প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে।

এদিকে ময়মনসিংহের জেলা স্কুল রোডে সিটি কর্পোরেশনের অনুমোদন লঙ্ঘন করে ভবন নির্মাণের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক।

দুদক, সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ময়মনসিংহের একটি এনফোর্সমেন্ট টিম আজ এ অভিযান পরিচালনা করে।

অভিযানকালে দুদক টিম ওই ভবন নির্মাণ সস্পর্কে যাবতীয় তথ্যাবলি সংগ্রহ করে। আপাতদৃষ্টিতে উভয় ভবনের মধ্যবর্তী স্থানে নিয়ম অনুযায়ী ফাঁকা স্থান রাখা হয়নি মর্মে টিমের নিকট প্রতীয়মান হয়। টিম এ বিষয়ে সুপারিশসহ কমিশনে বিস্তারিত প্রতিবেদন উপস্থাপন করবে।

এদিকে দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন- ১০৬) অভিযোগ আসে ব্যাংকে চাকরিরত অবস্থায় মাদরাসা শিক্ষক হিসেবে চাকরি করে বেতন ভাতা নেওয়ার অভিযোগ, স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আবাদি জমির উপর রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ, চেয়ারম্যান ও প্রকল্প পরিচালকের বিরুদ্ধে কাবিখা প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ, ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কাবিখা প্রকল্পে চাল বিতরণে অনিয়মসহ নানাবিধ অভিযোগ, ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে জন্ম নিবন্ধনে সরকারি ফি-এর অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত বেতন আদায়ের অভিযোগ, ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রকৃত কৃষকদের বাদ দিয়ে পছন্দের ব্যক্তিদের কাছ থেকে ধান ক্রয়ের অভিযোগ, স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে নদী থেকে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনের অভিযোগ, অফিস সহকারী ও পিয়ন পদে নিয়োগে ঘুষ দাবির অভিযোগ এবং জমির খাজনা আদায়ে ঘুষ দাবির অভিযোগের বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক কমিশনকে অবহিত করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার, আশাশুনি, সাতক্ষীরা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বাঘা, রাজশাহী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বাজিতপুর, কিশোরগঞ্জ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বোচাগঞ্জ, দিনাজপুর, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, চৌদ্দগ্রাম, কুমিল্লা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, খোকসা, কুষ্টিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, পীরগঞ্জ, রংপুর, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কুমারখালী, কুষ্টিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বারহাট্টা, নেত্রকোণা এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার, গোমস্তাপুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-কে পত্র প্রেরণ করেছে দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিট।

এমইউ/এসএইচএস/পিআর