কারখানার তিন কোটি টাকার মালামাল ছাই!

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩৮ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৯

পুরান ঢাকার লালবাগে মেডিকেল সরঞ্জাম তৈরির প্লাস্টিক কারখানা আগুনে পুড়ে গেছে। ঈদে প্লাস্টিক কারখানা বন্ধ থাকায় কেউ হতাহত না হলেও ভেতরে রাখা প্রায় তিনি কোটি টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বলে দাবি করেন কারখানা মালিকের বোন সায়মা আক্তার মালা।

লালবাগে পোস্তা ঢালের ৬৯/১ ভবনে বুধবার রাতে প্লাস্টিক কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। কারখানার পেছনে ট্রান্সমিটার বিস্ফোরণ হয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন লাগে। কারখানায় আগুন লাগলেও সেই আগুনে পাশের আরও দুটি বসতবাড়ি পুড়ে গেছে। তবে আগুনে কেউ হতাহত হয়নি। ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় রাত দেড়টার দিকে এ আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

আগুনে পুড়ে যাওয়া পোস্তা ঢালের মেডিকেল বায়োমেট্রিক কারখানা মালিকের বোন সায়মা আক্তার মালা জাগো নিউজকে বলেন, ‘ঈদে কারখানা বন্ধ করে আমার ভাই বশির আলম মুন্সিগঞ্জ গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে গেছেন। গতকাল বুধবার রাতে আগুন লেগে তার কারখানার ভেতরে রাখা সব মালামাল পুড়ে গেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমার ভাই ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে মেডিকেল সরঞ্জাম তৈরির কারখানা করেছেন। এখনও ব্যাংকের ঋণ শোধ হয়নি। ঈদের আগে অনেক মালামাল তৈরি করে রাখা ছিল ঈদের পর বিক্রির জন্য। অথচ কারখানার পেছনে ট্রান্সমিটার বিস্ফোরণ হয়ে ভেতরে থাকা প্রায় তিন কোটি টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। রাতে ভাইকে ফোন করে আগুন লাগার ঘটনা জানানো হয়েছে। তিনি আজ ঢাকার উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন।’

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে ফায়ার সার্ভিস। আগুন নিয়ন্ত্রণের পর বৃহস্পতিবার সকালে এ কমিটি গঠন করা হয়।

ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক (অপারেশন) দীলিপ কুমার ঘোষকে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। সহকারী পরিচালক (এডি) আব্দুল হালিম এবং উপ-সহকারী পরিচালক (ডিএডি) নিউটন দাসকে কমিটির সদস্য করা হয়েছে। কমিটিকে পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

এমএইচএম/এনডিএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :