‘গার্লস প্রায়োরিটি’ গ্রুপের এডমিন তাসনুভা কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৭:০৮ পিএম, ২১ আগস্ট ২০১৯

নানা কারণে সমালোচিত ফেসবুক ব্যবহারকারী ও ‘গার্লস প্রায়োরিটি’ নামে একটি ফেসবুক গ্রুপের নারী এডমিন তাসনুভা আনোয়ারকে কারাগারে পাঠিয়েছেন চট্টগ্রামের আদালত।

বুধবার (২১ আগস্ট) তার বিরুদ্ধে দায়ের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলায় জামিন আবেদন করলে চট্টগ্রাম মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেহ মোহাম্মদ নোমানের আদালত আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এর আগে উচ্চ আদালত থেকে আট সপ্তাহের জামিনে ছিলেন অভিযুক্ত তাসনুভা আনোয়ার।

তাসনুভা আনোয়ার চট্টগ্রামের বহুল সমালোচিত ফেসবুক গ্রুপ ‘গার্লস প্রায়োরিটি’র এডমিন। গত ২৬ মে ইসতিয়াক হাসান নামের এক ব্যক্তি পাঁচলাইশ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওই মামলায় তাসনুভা আনোয়ার উচ্চ আদালত থেকে আট সপ্তাহের জামিন নিয়েছিলেন।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) কামরুজ্জামান জানান, উচ্চ আদালত থেকে নেয়া জামিনের মেয়াদ শেষ হলে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেছিলেন তাসনুভা। আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গত ১২ জুন কাউন্টার টেরোরিজমের একটি ইউনিট নগরের চিটাগাং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি থেকে তাসনুভাকে আটক করলেও পরে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে ছেড়ে দেয়। সে সময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পেজ, গ্রুপ, ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি ‘হ্যাক’ করার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া সালমান মোহাম্মদ ওয়াহিদের দেওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাসুনভা আনোয়ারকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছিল পুলিশ।

এর আগে ২৬ মে ইসতিয়াক হাসান নামে এক ব্যক্তি নগরের পাঁচলাইশ থানায় ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮’ এর ১৭/১৮/২৪/২৫/৩৪/৩৫ ধারায় একটি মামলা করেন। ওই মামলায় গার্লস প্রায়োরিটি গ্রুপের এডমিন তাসনুভা আনোয়ার ছাড়াও আসামি করা হয় একই গ্রুপের সাথে সংশ্লিষ্ট আমেনা চৈতী, ফেসবুক হ্যাকার সালমান মোহাম্মদ ওয়াহিদ, নাদিয়া আকতার রুমিকে। এদের মধ্যে সালমান ওয়াহিদ আগেই গ্রেফতার হয়ে কারাগারে। হাইকোর্ট থেকে জামিনে আছেন অপর এডমিন নাদিয়া আক্তার রুমি। পলাতক আছেন মামলার আরেক আসামি আমেনা আক্তার চৈতি।

আবু আজাদ/এসএইচএস/পিআর